তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:
করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ২৭ হাজার ছাড়াল। বিভিন্ন দেশে ২৭ হাজার ৩৬৫ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনা ভাইরাস।

অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ লাখ ৩৩ হাজার ৩৬৩ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। এর আগ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ছিল চীনে।

করোনা পরিস্থিতিতে ঘরবন্দি অধিকাংশ মানুষ। বাসার বাইরে পা রাখতে নিষেধ করেছে সরকার। কিন্তু আপনার সাধের বাইকটি ১০ দিন না চললে খারাপ হতেই পারে? আপনার জন্যই বাইক সচল রাখার পাঁচটি পরামর্শ –

১. গাড়ির তেল বাতাসে উড়ে যায়। অনেকদিন ধরে বাইকের কার্বুরেটর তেল রেখে দিলে, উড়ে যাওয়ার পর একটি চ্যাটচ্যাটে বস্তু কার্বুরেটর এর মধ্যে থেকে যায়। যার কারণে কার্বুরেটর সঠিকভাবে কাজ করে না এবং বাইক স্টার্ট করাতে অসুবিধা হয়। এই মুহূর্তে দরকার, যতটা তেল আপনার বাইকে রয়েছে সেটি খরচ করে ফেলা। বাসার বাইরে তো বের হতে পারবেন না তাহলে কিভাবে ওই তেল খরচ করবেন? তেলের ট্যাঙ্কের নিচের অংশে একটি রেগুলেটর রয়েছে। সেই রেগুলেটার অফ করে বাইক স্টার্ট দিন। অবশ্যই বাইকের ডবল স্ট্যান্ড করে নেবেন। যতক্ষণ না বাইক নিজের থেকে স্টার্ট বন্ধ করছে ততক্ষণ স্টার্ট অন রাখবেন।

২. আপনার বাইকের ব্যাটারি মান ভালো রাখতে ব্যাটারির সঙ্গে বাইকের যে কানেকশন রয়েছে, সেই দুটোর মধ্যে একটি পয়েন্ট খুলে রাখুন।

৩. ক্লাচ চিপে ধরে সেটিকে দড়ি দিয়ে বেঁধে নিন। এরপর গাড়িটিকে ডবল স্ট্যান্ড থেকে নামিয়ে সামনে ও পিছনে এক-দুবার হাটিয়ে নিন। মনে রাখবেন, ১০ দিন গাড়ি না চললে ক্লাচ সঠিকভাবে কাজ করতে নাও পারে।

৪. এই ১০ দিন গাড়িকে ধোয়ামোছা করে ভালভাবে কভার করে রাখুন। গাড়ি সিটের দিকে অতিরিক্ত নজর দিন। কারণ গরম পড়ে গেছে, দীর্ঘদিন ব্যবহার না হওয়ার ফলে, এসময় গাড়ির সিটে পিঁপড়ের বাসা বাধার সম্ভাবনা থেকে যায়।

৫. গাড়ি না চললেও বাইকের চাকায় হাওয়া ভরে রাখবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •