অনলাইন ডেস্ক : বলিউড গায়িকা কণিকা কাপুরের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর ব্রিটেনের রাজপরিবারের অন্যতম সদস্য প্রিন্স চার্লসের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর ফলাও করে প্রচার করে গণমাধ্যম।

শোনা যাচ্ছে, ‘বেবি ডল’খ্যাত এই সংগীতশিল্পীর সংস্পর্শে এসেই নাকি প্রিন্স চার্লস করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন!

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। সেই ছবিতে একটি পার্টিতে প্রিন্স চার্লস ও কণিকা কাপুরকে একসঙ্গে দেখা যাচ্ছে।

আর এই ছবি দেখেই নেটিজেনরা ধারণা করছেন, গায়িকা কণিকার কারণেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রিন্স চার্লস।

তবে কণিকার সংস্পর্শে এসে প্রিন্স চার্লস আক্রান্ত হয়েছেন বলে যে খবর বের হয়েছে, তা ভুয়া বলে জানিয়েছে ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম।

তাদের দাবি, গায়িকা কণিকা কাপুর এবং চার্লসের এই ছবি অনেক পুরনো। বর্তমানে দুজনেই করোনা সংক্রমিত হওয়ায় ভাইরাল হয়েছে ওই ছবি।

প্রসঙ্গত জানা গেছে, গত ১৫ মার্চ লন্ডন থেকে লখনৌতে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে আসেন গায়িকা কণিকা। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছেও তিনি কোনো রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতে অস্বীকার করেন এবং তার লন্ডন ভ্রমণের কথা চেপেও যান।

শুধু তাই নয়, ওই দিনই একটি পাঁচতারকা হোটেলে ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে পার্টিরও আয়োজন করেছিলেন কণিকা। কণিকার বন্ধুরা ছাড়াও ওই পার্টিতে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও উচ্চপদস্থ আমলাসহ প্রায় ৩৫০ অতিথি যোগ দিয়েছিলেন।

ওই পার্টিতে অংশ নিয়েছিলেন রাজস্থানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে ও তার পুত্র বিজেপির সংসদ সদস্য দুষ্মন্ত সিংহ। ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ মন্ত্রিসভার মন্ত্রী জয়প্রতাপ সিং।

কণিকার নৈশপার্টিতে যাওয়া অনেকেই নিজের ইচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে গেছেন।

এ ঘটনায় কণিকার বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। বর্তমানে লখনৌতে চিকিৎসাধীন এ গায়িকা। আর প্রিন্স চার্লসও স্কটল্যান্ডের প্যালেসে আইসোলেশনে চিকিৎসার মধ্যে রয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •