মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

ভয়াবহ করোনা ভাইরাস রোগীর চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্টদের ব্যবহারের জন্য কক্সবাজারে ৫৭০ টি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত ব্রান্ডের পিপিই (পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট) ও ৮ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক কক্সবাজারে পাঠানো হয়েছে। এসব চিকিৎসা সামগ্রী থেকে ইতিমধ্যে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল, জেলা কারাগার, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলো সহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে চাহিদা মতো সরবরাহ করা হয়েছে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির আহবায়ক মোঃ কামাল হোসেন সিবিএন-কে এ তথ্য জানিয়েছেন।

জেলা প্রশাসক আরো বলেন, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ভাইরাস জীবাণু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হওয়ার পরই কিছু পিপিই (করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স, আয়া, ক্লিনার সহ অন্যান্যদের পরিধানের ড্রেস) কক্সবাজারের হাসপাতাল গুলোতে সরবরাহ দেওয়া হয়েছিলো। তবে তা চাহিদার তুলনায় একটু অপ্রতুল ছিল। ২৭ মার্চ শুক্রবার আরো ৫৭০ টি পিপিই পাওয়ায় সেই অপ্রতুলতা একেবারে কেটে গেছে। বরং চাহিদা মাফিক সরবরাহ দেওয়ার পরও আপদকালীন ব্যবহারের জন্য পর্যাপ্ত পিপিই মওজুদ রয়েছে। এরপরও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পিপিই, মাস্ক ও করোনা ভাইরাস পরীক্ষার কীট সহ অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রীর জন্য জরুরি চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে। সেগুলো আগামী ৩/৪ দিনের মধ্যে কক্সবাজার পাঠানো হবে বলে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে সিবিএন-কে জানিয়েছেন। এছাড়া ৮ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক সরবরাহ পাওয়ায় জেলায় আর কোন মাস্কের সংকট নেই বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •