ইমাম খাইর, সিবিএন
অবৈধ মজুদ, অতিরিক্ত মূল্য আদায়, মূল্য তালিকা ও ক্যাশ মেমো সংরক্ষণ না করাসহ নানা অপরাধে কক্সবাজার শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালিয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।
বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) দিনব্যাপী অভিযানে হাসপাতাল রোডের আম্মাজান সার্জিক্যাল, কালুর দোকান এলাকার দুবাই সুপার সপসহ ৫টি দোকানকে ৩৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
অভিযানে প্রসিকিউটর হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বাজার কর্মকর্তা মোঃ শাহজান আলী।
ভোক্তা অধিকার কক্সবাজার এর সহকারী পরিচালক মোঃ ইমরান হোসাইন জানান -মাস্ক, স্যানিটাইজার মজুদ করার অপরাধে হাসপাতাল রোডের আম্মাজান সার্জিক্যালকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় উপস্থিত খুচরা বিক্রেতাদের মাঝে মজুদকৃত পন্য বিক্রি করা হয়।
হাসপাতাল রোড, পান বাজার এলাকায় ঔষদের নাম বৃদ্ধি না করা, মজুদ না করার জন্য ব্যবসায়ীদের মাঝে সচেতনতামূলক বক্তব্য দেওয়া হয়। পরবর্তীতে কাচা বাজার এলাকায় মাইকিং এর মাধ্যমে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকরে দাম বৃদ্ধি না করার জন্য ব্যবসায়িদের সচেতন ও কিছু দোকানে ক্রয় ভাউচারের সাথে বিক্রিমূল্যের সঙ্গতি আছে কিনা পরীক্ষা করা হয়।
সেখান থেকে অভিযানকারীরা কালুর দোকান এলাকার বিভিন্ন দোকানে খাদ্যপণ্য, পরিমাপ, মূল্য তালিকা যাচাই করেন। এ সময় দুবাই সুপার সপকে অতিরিক্ত মূল্যে হেন্ড গ্লাভস বিক্রির অপরাধে ৫ হাজার টাকা নগদ অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।
পরবর্তীতে বিজিবি ক্যাম্প এলাকায় মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় মেসার্স বিশ্বাস ট্রেডার্সকে ৩ হাজার এবং উপজেলা বাজারের মুজিব ট্রেডার্সকে কারসাজি করে চালের দাম বাড়ানোর অপরাধে ২০ হাজার জরিমানা আদায় করা হয়।
সর্বশেষ বাংলাবাজার, পিএমকে রোড এলাকার বাহার রাইচ মিলকে সঠিকভাবে ক্যাশ মোমে সংরক্ষন না করা নিজ মিলে উৎপাদিত চাল অন্য প্রতিষ্ঠানের নামে প্যাকেট করার অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ করা হয়।
নিরাপত্তা প্রদানকরেন ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের টিম দায়িত্ব পালন করে।
ভোক্তা অধিকার রক্ষায় এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান মোঃ ইমরান হোসাইন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •