মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মুজিব শতবর্ষের শুভেচ্ছা ও সালাম নিবেন।

জাতির প্রতি দেয়া ভাষণে আপনি দেশের নিম্ন শ্রমজীবিদের জন্য ৫০০০ কোটি টাকা প্রণোদনা ঘোষণা দিলেন।এতে আপনাকে শ্রদ্ধার সহিত স্যালুট জানাচ্ছি।

১৮ কোটি মানুষের অভিভাবক ও প্রিয় নেত্রী,

কথা হচ্ছে-এই টাকাটা যেন সঠিকভাবে ভুক্তভোগী মানুষগুলোর হাতে যায়।এইদেশে প্রায় ৭ কোটি মানুষ দিনমজুর।
কিন্তু দেশের কিছু লুটেরা,দেশদ্রোহীরা গরীবদের এই অধিকার ও হক তাদের পকেটেই রাখতে মরিয়া।

খুব বেশি দূরে যেতে হবেনা প্রিয় মমতাময়ী নেত্রী…

মহেশখালীর মাতার বাড়িতে আপনার সুচিন্তিত ও উন্নয়নের প্রসার ঘটাতে এবং মাতার বাড়িকে আধুনিকায়নসহ দেশের বিদ্যুৎ ঘাটতি নির্মূল করতে আপনার সুপরিকল্পনার কথা অনস্বীকার্য।

কিন্তু,পরিতাপের বিষয় এই যে,স্থানীয় জনগণের প্রতি আপনার মায়াটানের যে পরিধি থেকে স্থানীয়দের চাকরি ও অগ্রাধিকার দেয়ার কথা ছিল,তার একাংশও এখনো হয়নি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।
এখনো স্থানীয়রা দুর্ভোগে জীবনযাপন করছেন…!এমনকি লেভার পর্যন্ত বাহির থেকে অানা হয়…!প্রিয় নেত্রী,প্রকল্পের বেশ কয়েক বছর অতিবাহিত হয়ে গেলেও,স্থানীয় জনসাধারণ এখনো খেয়ে-না খেয়ে দিনাতিপাত করছেন…!

স্থানীয় দালালচক্র ও পিতা মুজিবের আদর্শচ্যুত অধিকাংশ নেতা-কর্মীর টাকালোভী কর্মকান্ডে স্থানীয়রা ধোঁকে ধোঁকে জীবনযাপন করছেন..!

প্রিয় নেত্রী,এসব আদর্শহীন নেতা-কর্মীর কর্মকান্ডে সাধারণ জনমনে প্রশ্ন উঠেছে..
সরকার তাদেরকে আশ্বস্ত করে বিশ্বাসের অমর্যাদা করেছে…!
একবার স্বচক্ষে দেখে গেলে বুঝবেন-
কেমন আছে আপনার জনগণ,মাতার বাড়ির জনগণ..??

হে মমতাময়ী
#করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আপনার মত দৃঢ সাহসিকতা বিশ্বে এখনো কেউ দেখাতে পারেনি বলে এদেশেন ১৮ কোটি জনগণের বিশ্বাস।জনগণকে সচেতন করতে,মানুষের জীবনের তারতম্য স্থির রাখতে আওয়ামী লীগ তথা আপনার সরকার যা করেছেন ইতিমধ্যেই,তা বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেই।

তাই বলছি,আপনার পরিশ্রম যেন বৃথা না যায়,আপনি এমন মানুষ ঠিক করুন, যেন,দিনমজুরদের জন্য দেওয়া টাকাগুলো লুটতরাজদের পকেটে পরাধীন হয়ে না থাকে।।

পাশাপাশি আমি এও আরজি করছি প্রিয় নেত্রীর কাছে,
যেসব ধনী বা যেসব কোম্পানি এদেশে থেকে বা বাইরে থেকে হাজার হাজর কোটি টাকার মালিক হয়েছেন,তাদেন থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণের টাকা আদায় করুন।

এতে করে সরকারের দেশ চালাতে ও দিনমজুরদের সমস্যা মেটাতে এবং বেকার ভাতাসহ নানান সমস্যার সমাধান বের হবে ইনশাহআল্লাহ।

🇧🇩Plz..Take a look Honourable Prime Minister…

◾বিশ্বের বড় ১০ টা গার্মেন্টসের মধ্যে ৩ টাই আছে বাংলাদেশে।
◾এশিয়ার সেরা ১০ জন ধনীর মধ্যে ২ জন বাংলাদেশী।
◾এইদেশে হাজার কোটি টাকা আছে, এমন মানুষ আছে হাজারের উপরে।
◾স্কয়ার,বেক্সিমকো,প্রান-আরএফএল, ইনসেপ্টা, বসুন্ধরা,যমুনার মতো বিশাল কোম্পানি আছে ২০-৩০ টা।

প্রিয় নেত্রী,এরকম ছোট খাট বাট হাজার কোটি টাকার মালিকের অভাব নেই এই দেশে।কারণ দেশটা এখন উন্নতির দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে।।

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে এসব কোম্পানি ও মানুষগুলো থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা আদায় করা হোক…

কিংবা এক এক কোম্পানি বা ধনাঢ্য ব্যক্তিদেরকে এক একটা সাইড দেয়া হোক যেন তারা সবাই দেশের মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে সার্বিক সহযোগিতা করে।

যদি সম্মতি না দেয়,তবে এসব মানব নামের দানবদের অর্থ ও প্রপার্টির হিসেব জব্দ করে আজীবন তাদের কারাবন্দী ও সম্পদগুলো সরকারের কোষাগারে রেখে দেয়া হোক।

এতে করে দেশের যেকোন বিপর্যয়ে সরকার নিশ্চিন্তে জনগণের পাশে দাঁড়াতে পারবে বলে আমার দৃঢ বিশ্বাস।।

জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু
জয় হোক মেহনতি মানুষের।।

মোঃ শিহাব উদ্দিন
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ
মহেশখালী উপজেলা শাখা।।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •