•  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

গত ২২ মার্চ ২০২০ রোজ রবিবার দুপুর ০২:৫৮ ঘটিকায় কক্সবাজার স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল (coxsbazarnews.com) (cbn) কর্তৃক সরকারী মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বিএসসিসিএলের কক্সবাজার সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন কর্তৃপক্ষের নামে ‘‘সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি দখলের অভিযোগ” শিরোনামে অবৈধভাবে জমি দখল ও নির্মাণ কাজ করে যাচ্ছে বলে যে অসত্য, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও পক্ষপাতিত্বমূলক সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে (বর্তমান ওয়েব লিংক: https://www.coxsbazarnews.com/archives/251133.html? তার বিরুদ্ধে বিএসসিসিএলের পক্ষে নিম্নস্বাক্ষরকারী তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি।

বর্ণিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল যে সকল তথ্য/ উক্তি সংবাদ আকারে প্রকাশ করেছে তা অসত্য, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও পক্ষপাতিত্বমূলক। এ বিষয়ে বিএসসিসিএলের বক্তব্য গ্রহণ অথবা প্রকাশ করা হয়নি। বিএসসিসিএল একটি সরকারী মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এবং অত্র সংস্থা কাহারো জমি জোরপূর্বক দখল করে নাই। বরং প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে, কক্সবাজার থানা/উপজেলাধীন ঝিলংজা মৌজার একই ব্লকে বি.এস-৬২২৩, ৬২২৪, ৬২২৬, ৬২২৭, ৬২২৯ নং দাগসমূহে মোট ৬.১১ একর জমি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক টেলিগ্রাফ এন্ড টেলিফোন বিভাগের, বর্তমান ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিটিটিবি এর স্বত্বীয় দখলীয় জমি। উক্ত জমি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে বেতার বিভাগের নামে বি.এস ৭নং খতিয়ান শুদ্ধভাবে প্রচার আছে। উপরোক্ত বি.এস দাগসমূহের মধ্যে ৬২২৯নং দাগসহ কয়েকটি দাগে বিএসসিসিএল কর্তৃক স্থাপিত সীমানা প্রাচীরের বাহিরেও জমি রয়েছে। উল্লিখিত ৬২২৯নং দাগটিতে ল্যান্ডিং স্টেশনের সীমানা প্রাচীরের পূর্বাংশে আংশিক জমি অব্যবহৃত অবস্থায় থাকায় বিএসসিসিএল সম্প্রতি সে স্থানে জনগণের জন্য চলাচলের রাস্তা সংরক্ষণকরতঃ স্থাপনা নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে।

উল্লিখিত বি.এস ৬২২৯ দাগের পূর্ব পার্শ্বে নারায়ন মল্লিক গংদের মালিকানাধীন বি.এস ৬২৩৭ দাগ অবস্থিত এবং বিএসসিসিএলের স্বত্বীয় অনালিশী বি.এস ৬২২৯ দাগের জমি পরস্পর লাগোয়া জমি। পরস্পর লাগোয়া হওয়ার সুযোগে এই বিবাদীর স্বত্বীয় দখলীয় উক্ত অনালিশী বি.এস ৬২২৯ দাগের পূর্বাংশের অব্যবহৃত জমি নিষেধাজ্ঞার আদেশের আবরণে অবৈধভাবে ভোগ দখলের অসৎ উদ্দেশ্যে নারায়ন মল্লিক গং বিএসসিসিএলের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। উক্ত মামলায় আদালত কর্তৃক কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হলে বিএসসিসিএল আদালতে তার জবাব দাখিল করে। দায়েরকৃত মামলায় আদালত কর্তৃক অদ্যাবধি কোন নিষেধাজ্ঞা জারি করা না হওয়ায় উক্ত জমিতে স্থাপনা নির্মাণে বিএসসিসিএলের কোন আইনগত বাধা নেই। তাছাড়া বিএসসিসিএলের ন্যায় একটি সরকারি সংস্থার জোড়পূর্বক বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে জমি দখলের কোন সুযোগ নেই।

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য যে, নারায়ন মল্লিক গং কর্তৃক ইতোপূর্বে আপত্তি জানানো হলে নারায়ন মল্লিক গং ও বিএসসিসিএল যৌথভাবে ২০০৪ ও ২০১৯ সালে দুইবার সরকারী সার্ভেয়ার দ্বারা পরিমাপপূর্বক এই বিবাদীর স্বত্বীয় দখলীয় বি.এস ৬২২৯ দাগের পূর্ব সীমানা চিহ্নিত করে এবং সে মোতাবেক সীমানা পিলার স্থাপন করা হয়। সীমানা প্রাচীরের বাহিরে অবস্থিত বিএসসিসিএলের জমিতে দীর্ঘদিন যাবৎ উক্ত সম্পত্তির মালিকানা প্রচারকরতঃ বাংলাদেশে সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির

ল্যান্ডিং স্টেশনের সাইনবোর্ড স্থাপিত আছে। উল্লিখিত ডিমার্কেশনের পর নারায়ন মল্লিক গং কোন প্রকার আপত্তি উত্থাপন করে নাই। নারায়ন মল্লিক গং এর মালিকানাধীন জমির সীমানার পশ্চিম পার্শ্বে অর্থাৎ অনালিশী বি.এস ৬২২৯ দাগের অংশে বিএসসিসিএল উন্নয়ন কাজ করছে।

নারায়ন মল্লিক গংদের দায়েরকৃত মামলার আরজি ও অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার দরখাস্তে বর্ণিত মতে বিএসসিসিএল নারায়ন মল্লিক গংদের স্বত্বীয় নালিশী বি.এস দাগের জমিতে কোন বাধা বিঘ্ন সৃষ্টি করেনি বা নারায়ন মল্লিক গংদের স্বত্ব দখলীয় বি.এস দাগের জমি হতে কোন জমি বিএসসিসিএল অবৈধভাবে দখল করেনি এবং তাদের কখনও হুমকি প্রদান করেনি। বরং বিএসসিসিএল তার মালিকানাধীন অব্যবহৃত জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করেছে মাত্র।

প্রকৃত পক্ষে সরকারী নির্মাণাধীন কাজে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির মাধ্যমে অন্যায় লাভের অসৎ উদ্দেশ্যে নারায়ন মল্লিক গং আদালতে একটি মিথ্যা মামলা ও অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার দরখাস্ত দাখিল করে। সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের নিজস্ব জায়গাতে নির্মাণ কাজ শুরু করলে স্থানীয় নারায়ন মল্লিক গং উক্ত চলমান নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য ঠিকাদারকে ভয়ভীতি প্রদর্শনকরতঃ স্থানীয় মাস্তান ও সন্ত্রাসী দ্বারা নির্মাণ কাজে বাঁধা সৃষ্টি করছে। উল্লেখ্য যে,কক্সবাজার সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনটি সরকারের একটি ১ম শ্রেনীর কেপিআই বিধায় ইহা দেশের একটি গুরুত্বপূর্ন ও অত্যন্ত স্পর্ষকাতর স্থাপনা। এই ক্যাবলের মাধ্যমে বিএসসিসিএল সাড়া দেশে ইন্টারনেট সেবা প্রদান করছে। এই সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে প্রকৃত তথ্য অবহিত না হয়ে এরুপ একটি ভিত্তিহীন ও অসত্য খবর প্রচার কোনক্রমে বাঞ্চনীয় নয়।

অনলাইন নিউজ পোর্টালটির সম্মানিত সম্পাদক কিভাবে না জেনে না শুনে এবং বিএসসিসিএলের বক্তব্য গ্রহণ না করে অসত্য, ভুল, বানোয়াট ও একপেশে সংবাদ প্রকাশ করলো তা বোধগম্য নয়। সংবাদ মাধ্যম হলো সমাজের দর্পন কিন্তু বর্ণিত সম্পাদক মহোদয় সম্পূর্ণ নীতি বর্হিভূতভাবে সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি তথা সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অসত্য তথ্য প্রকাশ করায় নিম্নস্বাক্ষকারী এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপনকরতঃ প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ হিসেবে অত্র প্রতিবাদ লিপি প্রকাশকরতঃ অবহিত করার জন্য অনুরোধ করছি।

(মো: শাখাওয়াত হোসেন)
উপ-মহাব্যবস্থাপক (চাঃ ও রঃ, কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশন) অঃ দাঃ
বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানী লিমিটেড (বিএসিসিএল)
সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন, কক্সবাজার।
ফোনঃ০৩৪১-৫১০০৫, ফ্যাক্সঃ ০৩৪১-৫১০০৬


  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
 cbn