হুমায়ূন রশিদ, টেকনাফ:

টেকনাফে লুডু খেলার সময় কথা কাটাকাটির জেরধরে সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আবু তাহের বাবুর্চি নামে এক পুরান রোহিঙ্গা খুন হয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছেন।
সূত্র জানায়,২৪ মার্চ (মঙ্গলবার) বিকাল সাড়ে ৩টারদিকে টেকনাফ পৌর এলাকার পুরাতন পল্লান পাড়ায় অবস্থান নেওয়া রোহিঙ্গা এবাদুল্লাহ পুত্র মোঃ আবু তাহের বাবুচির্ (৩৬), আবুল কাসেমের পুত্র নুরুল আমিন (পুতু), সিরাজের পুত্র নুর ইসলাম (৩৬)সহ একটি গ্রæপ মোবাইলে লুডু খেলছিল। এই ‘লুডু’ খেলায় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তর্কের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সংঘর্ষের রূপ নিলে প্রতিপক্ষ আবু তাহের বাবুর্চিকে ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন আবু তাহেরকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
বিষয়টি টেকনাফ মডেল থানা পুলিশকে অবহিত করা হলে এসআই অরুন কুমার চাকমার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল হাসপাতালে গিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর পর মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্ট মর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।
টেকনাফ মডেল থানার (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ, লুডু খেলার ব্যাপারে ছুরিকাঘাতে তাহের বাবুর্চি খুনের সত্যতা নিশ্চিত করেন এবং অভিযোগের ভিত্তিতে খুনের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •