ইমাম খাইর, সিবিএন
আতঙ্কের মধ্যেই অবশেষে কক্সবাজারে প্রথম ‘করোনা ভাইরাস’ আক্রান্ত মহিলা রোগী শনাক্ত হয়েছে।
রোগীর নাম মুসলিমা খাতুন। বয়স ৭০ বছর। বাড়ি চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী দক্ষিণপাড়া।
তার স্বামী মৃত রশিদ আহমদ। ছেলে মোহাম্মদ সোলাইমান কক্সবাজার সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ।
মহিলা রোগীটি বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ৫০১ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বেলা সোয়া দুইটার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মোহাম্মদ শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী।
করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ওই মহিলাকে বিশেষ এম্বুলেন্সে করে চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট এলাকার করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা কেন্দ্রে পাঠানো হচ্ছে।
গত ১৮ মার্চ জ্বর, কাঁশি, গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মুসলিমা খাতুনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করার জন্য ২২ মার্চ ঢাকাস্থ আইইডিসিআরে নমুনা পাঠানো হয়েছিল।
মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) ওই মহিলার করোনা ভাইরাসের পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়।
ডা. মোহাম্মদ শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী বলেন, এ পর্যন্ত ৮ জন চিকিৎসক, ৮ জন নার্স, ৩ জন ক্লিনার হোমকোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। আরো অনেকেকে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
মুসলিমা খাতুন নামক রোগিকে হাসপাতালে আনার পর সন্দেহ হলে অস্বীকার করে স্বজনেরা। যে কারণে চিকিৎসক, নার্সদের ঝুঁকিতে পড়তে হলো বলে জানান হাসপাতালের আরএমও।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে করোনা আক্রান্ত মহিলার ছেলে অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সোলাইমান জানান, গত ১৩ মার্চ ওমরাহ করে আসেন আম্মা। এরপর অসুস্থতা অনুভব করলে ১৮ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকদের পরীক্ষা নীরিক্ষায় করোনা ধরা পড়ে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •