রামু সংবাদদাতা:
রামুর উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের শুকমনিয়া এলাকার মানুষ অবৈধভাবে বসানো ওয়াটার পাম্প মোটরের কারণে নিত্যদিনের পানির সংকটে রয়েছে। এই ওয়াটার পাম্প মোটরের কারণে ওই এলাকার টিউবওয়েল গুলো পানি শূন্য হয়ে গেছে। ফলে এলাকাবাসী চরম পানি শূন্যতায় ভুগছেন এলাকায় সাধারণ মানুষ। এঘটনায় অত্র এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ,বিএডিসি কর্তৃক সেচ প্রকল্পের আওতায় কৃষি জমিতে পানি সরবরাহ করার ব্যবস্থা থাকার পরও কিছু অসাধু লোক কৃষকদের কাছ অতিরিক্ত অর্থ হাতিয়ে নিতে এই অবৈধ ওয়াটার পাম্প মটর স্থাপন করেছেন।

গত এক সপ্তাহ আগে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশনায় এই অবৈধ ওয়াটার পাম্প মটর বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকে এলাকাবাসী নিয়মিত টিউবওয়েল পানি পাচ্ছে। কিন্তু কয়েক দিন ধরে এই অবৈধ ওয়াটার পাম্প মোটরের মালিক তিতার পাড়া এলাকায় দিদারের লোকজন পুনরায় অবৈধ ওয়াটার পাম্প মটর চালানোর জন্য বিভিন্ন প্রকার পায়তারা করে যাচ্ছে।

এলাকাবাসী আরো বলেন,টিউবওয়েল আর ওয়াটার পাম্প মোটরের পানির স্থর সমান হওয়ায় এই সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।যখন টিউবওয়েলে পানির সংকট হতো তখন ওই ওয়াটার পাম্প মটরে পানি আনতে গেলে মটর মালিক গালিগালাজ করতো। ফলে খাবার পানির তীব্র সংকটে ভুগতে হতো এলাকাবাসীর।

স্থানীয়দের দাবি,এই অবৈধ ওয়াটার পাম্প মটর চিরতরে বন্ধ ও তাদের সমস্যা সমাধান করার জন্য রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •