মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে (COVID-19) কক্সবাজার জেলাবাসীকে টেলি চিকিৎসা নেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। যাদের রোগ ব্যাধি একেবারে প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে, তাদেরকে হাসপাতালে গিয়ে অযথা ভীড় না করে নিজেকে নিরাপদ রেখে চিকিৎসকদের নির্ধারিত মোবাইল ফোনে কল করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থাপত্র নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। তবে রোগ জটিল ও জরুরী বিষয় হলে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যেতে বলেছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সিবিএন-কে নিশ্চিত করে বলেছেন, এ ব্যবস্থা কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ও কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের সমন্বিত একটি উদ্যোগ। তিনি বলেন, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে করোনা ভাইরাস জীবাণু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসার জন্য ১০ টি আইসোলেসেন বেড প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে। তবে এ পর্যন্ত কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে কোন করোনা ভাইরাস জীবাণু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়নি। কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রতিদিন ৫ শতাধিক রোগী থাকে। তাই এ হাসপাতালে করোনা ভাইরাসের মতো সংক্রামক রোগীর চিকিৎসা দেওয়া অন্যান্য রোগী, চিকিৎসক, নার্স, স্টাফ সহ সংশ্লিষ্ট সকলের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়। তিনি বলেন, সদর হাসপাতালে কোন করোনা ভাইরাস রোগী সনাক্ত করা হলেই তাকে রামু ৫০ বেডের আইসোলেশন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

জেলা সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সিবিএন-কে আরো বলেন, সদর হাসপাতালে আউটডোর ও জরুরী বিভাগে ফ্লো কর্ণার খোলা হয়েছে। চিকিৎসক ও চিকিৎসা কাজে নিয়োজিত অন্যান্যদের করোনা ভাইরাস (COVID-19) জীবাণু প্রতিরোধক ড্রেস আছে কিনা জানতে চাইলে, তিনি সিবিএন-কে বলেন, সরকারিভাবে পর্যাপ্ত জীবাণু প্রতিরোধক ড্রেস সরবরাহ করা হয়েছে। সেসব জীবাণু প্রতিরোধক ড্রেস পরিধান করে সদর হাসপাতালে এখন রোগী দেখা হচ্ছে। কিছু জীবাণু প্রতিরোধক ড্রেস এখনো মজুদ আছে।

জনসাধারণের টেলি চিকিৎসার সুবিধার্থে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল ও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের মোবাইল ফোন নাম্বার গুলো সংগ্রহে রাখার জন্য সর্বসাধারণের প্রতি সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন অনুরোধ জানিয়েছেন।

শুধুমাত্র কাশি, জ্বর
গলাব্যথা, সর্দি হলে রোগীদের হাসপাতাল না এসে সরাসরি নিম্নোক্ত মোবাইল ফোন নাম্বারে কল দিতে বলেছেন-
জেলা সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ মোহাম্মদ মহিউদ্দিন।
তিনি নিজে চিকিৎসকদের প্রধান সমন্বয়কারী। তাঁর
মোবাইল ফোন নাম্বার হলো : ০১৬৭৫২৩৩৪৫৫
এছাড়া অন্যান্য চিকিৎসকেরা হলেন-
ডাঃ কবির আহমেদ
০১৭১১২২৬৩১১, ডাঃ রফিক উস সালেহীন ০১৬২৮৫০০৮৬৪, ডাঃ সুমন বড়ুয়া
০১৮১৯১৭৯৫৬৯, ডাঃ মোহাম্মদ শাহজাহান
০১৭১০৮০৭৯৮৮, ডাঃ অহিদুল হেলাল
০১৭২১৭৭১১২৩, ডাঃ শাহীন আব্দুর রহমান
০১৮১৬৪৩৮৪০০, ডাঃ আশিকুর রহমান
০১৭১৭১২২০৪৯, ডাঃ বিধান পাল,০১৭১৬৮৪৩০৮০, ডাঃ মুহাম্মদ নুরুল আলম
০১৮১৯৬৯২৫৭৪, ডাঃ ইয়াসির আরাফাত
০১৯৭৯১২৩৪৭৯, ডাঃ আবু মোহাম্মদ শামসুদ্দিন,
০১৭১০৯৭৩১৯৯, ডাঃ মুমিনুল ইসলাম
০১৫৩৬০৫০৪৮৭, ডাঃ আরিফ হোসেন
০১৮১৮৬৫০৪৬৩, ডাঃ এস এম সরওয়ার
০১৭২০১৫০১৩১, ডাঃ মারুফ রাহমান
০১৮১২৮২০১৪৮, ডাঃ জি এম নাদিম
০১৭১৭৪৬১১৪৮, ডাঃ শাখাওয়াত হোসেন
০১৭১১১৯৫০৪০, ডাঃ সাহেদুল ইসলাম (শিশু বিশেষজ্ঞ) ০১৬৩২৯৪৩৯৩৩।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১১ টার মধ্যে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য এসব চিকিৎকদের ফোন করতে বলা হয়েছে। কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল ও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের সমন্বিত এ মানবিক প্রয়াসকে সাধুবাদ জানিয়ে ইতিমধ্যে এ বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •