ইমরান আল মাহমুদঃ
প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে দিন দিন মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলছে।যা দিন দিন খুবই মারাত্নক আকার ধারণ করতেছে।সম্প্রতি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০জন।তার মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরেকজন শংকাজনক অবস্থায় আইসিইউতে ভর্তি আছেন।
তবে এমন অবস্থায় করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা বিষয়ে এখনো অসচেতন গ্রামাঞ্চলের লোকজন।কক্সবাজারের বিভিন্ন অজপাড়া গায়ে এখনো করোনা বিষয়ে খুব বেশি অবগত নয় লোকজন।তারা করোনার ভয়াবহতা বিষয়ে কিছুটা জানলেও তা মানতেছেনা।তারা পূর্ণ বিশ্বাস স্থাপন না করে করোনার ভয়াবহতার বিষয়টি এড়িয়ে চলে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতেছে আগের মতোই।তারা নিজেদের ইচ্ছামতো চলাফেরা করতেছে।তাদের মুখে নেই কোনো মাস্কের ব্যবহার,নেই কোনো ভীতি।এমনকি গ্রামাঞ্চলের কোমলমতি শিক্ষার্থীরাও বাইরে ঘুরাফেরা করে নিজেদের ইচ্ছামতো চলাফেরা অব্যাহত রেখেছে।তবে শিক্ষার্থীদের বাইরে ঘুরাফেরা বিষয়ে মাঠে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন।
কিন্তু তারা করোনার ভয়াবহতা নিয়ে খুব বেশী অবগত নয়।ফলে এমন পরিস্থিতিতে রোগ সংক্রমণের আশংকা রয়েছে।যা পরবর্তীতে মারাত্নক আকার ধারণ করে মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে পাঞ্জা লড়তে পারে।কেননা, এই প্রাণঘাতি ভাইরাস বাতাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার আশংকা বেশী।এবং এ ভাইরাস যেকোনো আবহাওয়ায় পরিবর্তনশীল।তাই সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে আত্নসচেতনতাই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •