কালেরকন্ঠ : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদারের মেয়ে কৃষ্ণা রুপা মজুমদারকে ছুরিকাঘাত করেছে তিন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত।

শুক্রবার তিনজন মুখোশধারী তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন কৃষ্ণা রুপা মজুমদার।

কিন্তু কোথায় কখন তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত জানাননি। তবে এই হামলাকে তিনি পূর্ব পরিকল্পিত বলে দাবি করেছেন।

বর্তমানে তিনি রাজধানীর মিন্টু রোডে বাবার বাসাতেই আছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চে কৃষ্ণা মজুমদার রুপার স্বামী এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. রাজন কর্মকার মারা যান। রাত ১২টা পর্যন্ত একটি হাসপাতালে রোগীর অস্ত্রোপচার করে ইন্দিরা রোডের বাসায় যান রাজন। রবিবার ভোর ৪টার দিকে রাজধানীর ফার্মগেটের ইন্দিরা রোডের বাসা থেকে রাজনকে তার পরিবারের লোকজন স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ভিসেরা পরীক্ষার প্রতিবেদনে বলা হয়, তার মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক। তবে রাজনের পরিবারের দাবি তাকে হত্যা করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •