রাইজিংবিডি
সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রিগ‌্যানের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় কুড়িগ্রামের সাবেক জেলা প্রশাসক (ডিসি) সুলতানা পারভীন, আরডিসি মো. নাজিম উদ্দিন, সহকারী কমিশনার রিন্টু বিকাশ চাকমা ও এস এম রাহাতুল ইসলামসহ ৩৫-৪০ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে এজাহার দাখিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে কুড়িগ্রাম সদর থানায় এজাহার দাখিল করা হয়।

আরিফুল ইসলাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তার পক্ষে এজাহার দাখিল করেন বাংলা ট্রিবিউনের অপরাধবিষয়ক প্রতিবেদক নুরুজ্জামান লাবু। এজাহার গ্রহণ করেন কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহফুজার রহমান।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ মার্চ রাত সোয়া ১২টায় অভিযুক্ত ব্যক্তিগণ ভ্রাম্যমাণ আদালতের নামে সাংবাদিক আরিফুলের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় ও তাকে মারপিট করে তুলে নিয়ে যায়। তাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গিয়ে এনকাউন্টারের চেষ্টা চালায়। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিয়ে আবারো নির্যাতন করা হয়। আরিফুলের বিরুদ্ধে মাদকের মামলা দিয়ে তাকে এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে জেলে পাঠানো হয়।

নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম বলেন, আমি কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় আমার প্রতিনিধির মাধ্যমে কুড়িগ্রাম সদর থানায় এজাহার জমা দিয়েছি। সঠিক তদন্ত করে নির্যাতনকারীদের আইনের আনার দাবি জানাচ্ছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •