•  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

ইমাম খাইর, সিবিএন
করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে কক্সবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্র পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বেলা দুইটার দিকে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন।
তবে, পর্যটন স্পটকেন্দ্রিক আবাসিক হোটেল, রেস্টুরেন্ট, ক্যাফেসহ যে সমস্ত প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেগুলোর বিষয়ে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয় নি।
আজ বিকেলের মধ্যে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা আসতে পারে বলে জানান জেলা প্রশাসক।
এদিকে, বুধবার বিকালে করোনা ভাইরাস থেকে আত্মরক্ষায় জনসমাগমে বিধিনিষেধ আরোপের পর থেকেই জনশূন্য হয়ে যায় কক্সবাজার সমুদ্র পাড়সহ আশপাশের এলাকাগুলো।
দূরপাল্লার বাস যাত্রীশূন্য বললেই চলে। বিমানের সিটও খালি যাচ্ছে।
প্রশাসনের ঘোষণার পর থেকে কক্সবাজারে পর্যটক আগমন ঠেকাতে মোড়ে মোড়ে অবস্থান নেয় পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। যাত্রীবাহীবাস তল্লাসি করতে চকরিয়ায় বসানো হয়েছে পোস্ট।
বিভিন্ন বাস কাউন্টার ও জনসমাগমের জায়গায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রচারপত্র বিলিসহ সতর্কতামূলক প্রচারণা চালানো হয়।
যে সকল পর্যটক বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে অবস্থান করছে তারা নিরাপদে গন্তব্যে ফিরতে পারবে।
তবে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা জারির পর কোন আবাসিক হোটেলে নতুন বুকিং নেয়া যাবে না বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে।
এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে হিমছড়ি, ইনানী, কক্সবাজার সৈকতে পর্যটক চোখে পড়ে নি।
চারিদিকে শূন্যতা বিরাজ করছে। আবাসিক হোটেলগুলোতে চোখে পড়ার মতো কোনো পর্যটক নাই। বাস ষ্টেশনগুলোতে সেই আগের জটলা নেই।
আবাসিক হোটেলের মালিকরা প্রশাসনের নির্দেশনা মেনে চলছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
 cbn