ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
গণপরিবহণ, হোটেল মোটেল, পর্যটন সংশ্লিষ্টদের প্রতি বিধিনিষেধ আরোপের পর এবার ক্ষুদ্রঋণ পরিচালনাকারী এনজিওগুলোর প্রতি নির্দেশনা দিয়েছে জেলা প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাঃ শাজাহান আলি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিভিন্ন এনজিওর ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম পরিচালনার পেক্ষিতে জনসমাগম হচ্ছে মর্মে বিরূপ প্রতিক্রিয়া রয়েছে। বিশ্বব্যাপী করোনা দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্য এ ধরণের জনসমাবেশ না করার জন্য সরকারের নির্দেশনা রয়েছে।
জননিরাপত্তা ও জাতীয় স্বার্থ বিবেচনায় এনজিওসমূহকে সম্ভাব্য যে কোন জনসমাগম হতে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করেছেন এডিএম।
নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোরতার হুঁশিয়ারি দিয়েছে জেলা প্রশাসন।
এদিকে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতাসহ পিকনিক, কর্পোরেট প্রতিনিধিদের জনসমাগম ও কক্সবাজার ভ্রমণ নিরুৎসাহিত করার লক্ষ্যে নজরদারি বৃদ্ধি করেছে জেলা প্রশাসন।
বুধবার সন্ধ্যা থেকে সাগরপাড়ের সুগন্ধা পয়েন্টে সতর্ক অবস্থান নেয় ডিবি পুলিশ।
চকরিয়ায় বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট। সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে আসা পর্যটকদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
ইতোমধ্যে গণপরিবহন সম্পৃক্ত লোকদের সাথে জরুরী ভিত্তিতে বৈঠক করে করোনা সম্পর্কিত নির্দেশনা দিয়েছে প্রশাসন।
সাগরপাড়সহ শহরজুড়ে মাইকিং ও প্রচারপত্র বিলি করেছে জেলা প্রশাসন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •