আবুল কালাম, চট্টগ্রাম
ফেসবুকে পরিচয় সম্পর্ক করে প্রতারণার অভিযোগ চট্টগ্রামের আকবরশাহ থানা পুলিশের অভিযানে এক নারীসহ দুই প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতরা হলো -রাঙামাটি জেলার কোতোয়ালী থানাধীন বনরূপা এলাকার দেওয়ান পাড়ার পুনানন্দ চাকমা মেয়ে প্রিমা চাকমা (২৮), আকবরশাহ থানাধীন ফিরোজশাহ কলোনীর কবরস্থান লেইনের রাজা কাশেমের বাড়ির মৃত সৈয়দ গোলাম হায়দারের ছেলে মো. ইকরাম হোসেন প্রকাশ মাম প্রকাশ রিপন (২২) এবং নোয়াখালী জেলার সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড়া ইউপির উন্দানিয়াস্থ ছাদু মিয়ার বাড়ির মো. ছাদুর ছেলে মো. আজাদ প্রকাশ জেসি (৩২)।
প্রিমা চাকমা বর্তমানে নগরীর আকবর শাহ থানা এলাকার বিশ্বব্যাংক কলোনীর সেভেন মার্কেটস্থ পি ব্লকে থাকেন।
জানা গেছে, কয়েকদিন আগে ফেসবুকে ভুক্তভোগীর সাথে পরিচয় ঘটে ২৮ বছরের তরুণী প্রিমা চাকমার। পরিচয়ের সূত্র ধরে একে অপরের সাথে দেখা করতে চায় দু’জনে। সম্প্রতি ভুক্তভোগী যুবককে দেখা করতে বলে নগরের আকবরশাহ থানা এলাকায় নিয়ে যায় সংঘবদ্ধ প্রতারকচক্রের সদস্য প্রিমা চাকমা ও তার দুই সহযোগী। এক পর্যায়ে একটি ঘরে ভুক্তভোগী যুবককে ঢুকিয়ে আটকে ফেলে। প্রিমার গায়ে হাত দেয়া এবং তার শ্লীলতাহানির ভয় দেখিয়ে তাকে হুমকি-ধমকি দেয়। এসময় ওই যুবকের কাছে থাকা ১টি ১ লক্ষ কাটা মূল্যমাণের ডেল ল্যাপটপ, বিভিন্ন ব্যাংকের ৪টি এটিএম কার্ড ও যুবকের পকেটে থাকা নগদ সাড়ে ৩ হাজার টাকা জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয় প্রতারক চক্র। ফেসবুকে পরিচয় ঘটা প্রতারক প্রিমা চাকমাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে তা পুলিশ ও ভুক্তবোগী যুবকের পরিবারকে জানানোর ভয় দেখিয়ে আরো ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। একইদিন ওই যুবককে প্রতারকচক্র জোর করে পাহাড়ের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে কৌশলে আটকে রাখে এবং মাঝে মধ্যে তারা চাঁদার দাবিতে তাকে মারধর করে। সর্বশেষ গত ৪ মার্চ বিকাল সোয়া ৪ টার সময় প্রতারক চক্রটি ভুক্তভোগী যুবকের কাছ থেকে বিকাশের মাধ্যমে ৪৯ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করে বিনিময়ে যুবককে ছেড়ে দেয়।
পরে ওই যুবক মুক্ত হয়ে পুলিশকে সব খুলে বলে এবং নিজে বাদি হয়ে প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলা হওয়ার পর আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
এসময় আসামিদের কাছ থেকে ল্যাপটপ, এটিএম কার্ড ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •