মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‍্যাব (Rapid Action Battalion-RAB) পরিচালিত এক অভিযানে এনু ও রুপনের বাসা থেকে জব্দকৃত ২৬ কোটি ৫৪ লাখ ৭৭ হাজার ১’শ টাকা বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা করা হয়েছে। আদালতের আদেশে টাকা গুলো বাজেয়াপ্ত করে রাষ্ট্রের অনুকূলে স্থায়ীভাবে বুধবার ১৮ মার্চ জমা করা হয়। নির্ভরযোগ্য সুত্র সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মানিলন্ডারিং আইনের ৪(২) ধারায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়ারী থানায় এনু ও রুপনের বিরুদ্ধে গত ২৭ ফেব্রুয়ারী দায়েরকৃত ২৪/২০২০ নম্বর মামলায় আদালতের আদেশে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) সিআইডি’র ইন্সপেক্টর মোঃ মেহেদী মাকসুদ জব্দকৃত ২৬ কোটি ৫৪ লাখ ৭৭ হাজার ১শ’ টাকা চালানমূলে সরকারী খাতের ১১২০১০০০১১৯১১ নম্বর কোডে জমা করেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে ক্যাশ বিভাগের ডেপুটি ম্যানেজার মোছাঃ মর্জিনা বেগম ও ক্যাশ অফিসার মাকসুদা খাতুন দ্বৈত স্বাক্ষরে উক্ত টাকা জমা নেন।

জানাগেছে, পুরো টাকার মধ্যে ১৪ টি ১০০০ টাকা মূল্যমানের জাল নোট, ৯ টি ১০০০ টাকা মূল্যমানের ও ১টি ৫০০ টাকা মূল্যমানের
নোট ছেড়া পাওয়া যায়। সুত্র মতে, পূর্ব প্রস্তুতি থাকা সত্বেও এ টাকা গুনে জমা করতে ওয়ারী থানা, সিআইডি এবং বাংলাদেশ ব‍্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগের র্কমর্কতা র্কমচারীদের সারাদিন হিমশিম খেতে হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •