‘অনুপ্রবেশকারী হঠাও, ছাত্রলীগ বাঁচাও’

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

ছাত্র সেনা হতে অনুপ্রবেশকারী এস এম বোরহান উদ্দিনসহ ছাত্র শিবির, ছাত্র ইউনিয়ন,অছাত্র, বিবাহিত, নারী কেলেঙ্কারী, হত্যা ও নাশকতা মামলার আসামি, ব্যাংকার, বিএনপি নেতার ভাই, ইয়াবা ব্যবসায়ী, টেন্ডারবাজ, বয়স ৪০ ছুঁইছুঁই ও জামায়াত পরিবারের সন্তানসহ বহু বিতর্কিতদের কমিটি থেকে বহিস্কার চেয়ে নগরীতে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের একাংশের কয়েক শতাধিক নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন।

রোববার (১৮ মার্চ) বিকাল ২ টার দিকে আন্দরকিল্লা দলীয় অফিস থেকে মিছিলটি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে এসে এক পথসভায় মিলিত হন।

পথসভায় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইরফান হাসান মান্নান তানিম, মিজানুর রহমান, আবুল কালাম আজাদ, জয়নাল আবেদীন, পিকু সেন, ফরহাদুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিদুয়ান লাভলু, চৌধুরী তানভীর, সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন মাহমুদ, এসডি বাবলা, ওয়াহিদুল ইসলাম, এম এইচ নয়ন, চৌধুরী মোহাম্মদ শাহাদত প্রমুখ।

সহ-সভাপতি ইরফান হাসান মান্নান তানিমসহ বক্তারা বলেন, ‘দীর্ঘদিন রাজপথে থাকা তৃণমূলের ত্যাগী কর্মীদের মূল্যায়ন না করে বিতর্কিতদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান দেওয়া হয়েছে। আমরা ত্যাগী কর্মীদের মূল্যায়ন চাই। নাহয় ছাত্রলীগের মাঠে থাকা কর্মীরা কঠোর আন্দোলনে যাবো।’

এছাড়াও সিনিয়র সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান বলেন, ‘কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত ১২ পাতার কমিটি ঘোষণা করা হলেও তা চট্টগ্রামে আসতে আসতে বোরহান ও তাহেরের হাতে ১৪ পাতায় পরিণত হয়। বলতে গেলে এই দ.জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হোক এবং অতিসত্বর বিতর্কিত কমিটি বাতিল করে পুনরায় নতুন কমিটি ঘোষণার দাবি জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, গত ৪ মার্চ (বুধবার) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত ২১ বছর পর ২৭১ সদস্য বিশিষ্ট বিরল চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। বিক্ষোভ মিছিল ও তৃণমূল ছাত্রদের দাবি ঘোষিত এই কমিটিতে ৬০ জনেরও বেশি বিতর্কিতদের স্থান দেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •