সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

উখিয়ায় ব্যতিক্রমী বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যদিয়ে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করেছে স্থানীয় বেসরকারি সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা ‘স্কাস’। ‘নারীর সমঅধিকার বাস্তবায়নে আমি সমতার প্রজন্ম’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ১৬ মার্চ দুপুর ১টা ৩০মিনিটে উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের স্কাই থাই রেষ্টুরেন্ট হলরুমে দিন দিবসটি পালিত হয়। দিবসটি ঘিরে সেবা সংস্থা স্কাসের কর্মরত বিভিন্ন পদের কর্তা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্টানে সেবা সংস্থা স্কাসের চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা প্রধান অতিথির স্বাগত বক্তব্যে বলেন, এক সময় নারীরা সামাজিক ভাবে অনেক পিছিয়ে ছিল। এখন নারীরা আর পিছিয়ে নেই। নিজের কর্ম,যোগ্যতা দিয়ে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি গুরুত্বপুর্ণ পদে এখন নারীরা সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছে। তাই প্রত্যেক নারীকে শত বাধা ও প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে সামনের দিকে এগোতে হবে। অন্যথায় নারীর অধিকার প্রতিষ্টা হবেনা।

অনুষ্টানের অন্যান্য অতিথিরা স্কাসের কর্মী এবং কর্মকর্তাদের উদ্দ্যেশ্য করে বলেন স্কাসের চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমার মধ্যে যে গুণটি রয়েছে তা অনুসরণ করলেই নারীরা অগ্রসর হতে সমস্যা হবেনা। বক্তারা এসময় নিজ উদ্যোগে নারী দিবসের প্রেক্ষাপটে সমাজে বিদ্যমান নারীর প্রতি সহিংসতা ও সামাজিক জীবনে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীর প্রতি দৃষ্টিভঙ্গির গুরুত্বারোপ করেন। বক্তারা আরো বলেন, ‘আজ এই দিবসের তাৎপর্যকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে সবাই মিলে আমরা আরও ঐক্যবদ্ধ হব, নারীর প্রতি যেকোনো সহিংসতা ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমরা একসঙ্গে কাজ করব।

রবীন্দ্র সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্টানে মুজিববর্ষের আলোকপাত করেন স্কাসের কর্মকর্তা তৌহিদুল মোস্তফা, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা স্কাসের প্রকল্প পরিচালক এজাবত উল্লাহ, বক্তব্য বাখেন এমোজের গ্লোবাল কো-অডিনেটর কাল এন্ডারসন, উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীন, উখিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক অর্থ-সম্পাদক শফিক আজাদ, নারী দিবসের আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সেবা সংস্থা স্কাসের মোমেনা বেগম, সাকেরা আকতার, সালেহ উদ্দিন, সুখেশ্বর চাকমা, মোঃ আবদুল কাইয়ুম, আহমেদ শরীফ, মোঃ গাজী শামীম।

এতে গান পরিবেশন করেন স্কাসের কর্মী জিয়াসমিন আকতার, তাসলিমা জান্নাত, সাকেরা বেগম, খুর্শিদা আকতার, তৌহিদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানের শেষে উপস্থিত অতিথিরা দিবসটি উপলক্ষ্যে কেক কাটেন। কেক কেটে সবার মধ্যে বিতরণ করেন স্কাসের চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •