মোহাম্মদ হোসেন,হাটহাজারী :
চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ই-মিউটেশন আরো সহজ করতে যাচ্ছেন নবাগত এসিল্যান্ড। এলাকার লোকজন যাতে সেবা পায়। অনলাইনে ভূমির নামজারী বা ই-মিউটেশন সেবাপ্রার্থীদের ভূমি অফিসে যাওয়ার হার এবং ভূমি অফিসে ব্যয় করা সময়ের হার কমছে। সেবা গ্রহণের সময় ও পরিদর্শন কমার ফলে ব্যয়ও কমছে।এতে নাগরিক সন্তুষ্টি বাড়ছে।
সোমবার(১৬ মার্চ) হাটহাজারী উপজেলা ভুমি অফিস পরিদর্শনকালে এ সব চিত্র চোখে পড়ে। ২০১৬ সালে পাইলট আকারে ই-মিউটেশন কার্যক্রম শুরু হয়। দেশের ৪৮৫টি উপজেলা ভূমি অফিস ও সার্কেল অফিসে এবং ৩ হাজার ৬১৭টি ইউনিয়ন ভূমি
অফিসে ই-মিউটেশন বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। সনাতন পদ্ধতিতে ৪৫ দিনের মধ্যে নামজারি করা হয়। আর অনলাইনে এ সেবা দেওয়া হয় ২৮ দিনের মধ্যে।

জমি কিনলে বা অন্য কোনো উপায়ে জমির মালিক হয়ে থাকলে হালনাগাদ রেকর্ড সংশোধন করে নতুন মালিকের নামে জমি রেকর্ড করাকে নামজারি বলা হয়। এখন অনলাইনেও নামজারি করা যায়। এটিকে বলা হচ্ছে ই-মিউটেশন । এতে নাগরিক
সন্তুষ্টি বাড়ছে।

হাটহাজারী উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভুমি) শরীফ উল্যাহ সাথে কথা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানায়,আপনি ঘরে বসে একটা নামজারী আবেদন করতে পারবেন। আপনাকে একটা বিশ্বাস রাখতে হবে তা হল, নামজারি একটি সহজ প্রক্রিয়া এবং আপনি
নিজেই তা সম্পন্ন করতে পারেন। আরো বিশ্বাস রাখতে হবে, কোন প্রকার দালাল/ভূমিদস্যু/মুন্সী বা অন্য কোন মধ্যস্থতাকারীর সহায়তা ছাড়াই আপনি নিজেই তা করতে পারেন। এতে হয়তো আপনার কিছু সময় ব্যয় হবে কিন্তু আপনার বহু অর্থের অপচয় যেমন বন্ধ হবে তেমনি।তিনি হাটহাজারীবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •