বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সে সচেতনতামূলক উদ্বোধন

বার্তা পরিবেশক

কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন বলেছেন, পৃথিবী জুড়ে করোনা ভাইরাসে ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশেও ঢুকে পড়েছে করোনা ভাইরাস। তাই করোনা ভাইরাস থেকে ম্ক্তু থাকতে সর্বস্তরের সবাইকে সচেতন হতে হবে। বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের মতো সকল প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি এই মারাত্মক ছোঁয়াছে রোগ থেকে মুক্ত থাকতে সবাইকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতন হওয়ার আহবান জানান। এসময় তিনি স্কুলের শিক্ষার্থীদের হাতে সচেতনতামূলক প্রচারপত্র তুলে দেন। বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স পরিচালিত স্কুল , হাসপাতাল, মসজিদ, মাদ্রাসা, এতিমখানাসহ ১১ টি প্রতিষ্ঠানে হাতমুখ ধোয়ার উত্তম ব্যবস্থা দেখে এবং প্রচারপত্র বিলি, সচেতনতামূলক কর্মসূচি দেখে বায়তুশ শরফের দায়িত্বশীলদের ভূঁয়সী প্রশংসা করেন।

১৫ মার্চ বিকালে বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমিতে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কমপ্লেক্স মহাপরিচালক শিক্ষাবিদ এম.এম. সিরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স আওয়তাধীন ১১ টি প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৮ হাজার লোকজন আনাগোনা হয়। আর এই ৮ হাজার লোকজনকে বায়তুশ কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে সচেতনতা সৃষ্টি করা হবে। সেই সাথে হাত মুখ ধোয়ার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স সব সময় মানুষের বিপদে এগিয়ে এগিয়ে এসেছে। এবারো করোনা ভাইরাস থেকে মানুষকে ম্ক্তু রাখতে সচেতনতামূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনীতিক জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি সাংবাদিক তোফায়েল আহমেদ. জেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা এস, এম কামাল, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক বিশ^জিত পাল বিশু, সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কুলের সহকাি শিক্ষক মো: আবু তৈয়ব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •