সিবিএন ডেস্ক:
জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোগল সম্রাটের মতো আচরণ করছেন বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। রোববার (১৫ মার্চ) সুপ্রিম কোর্ট চত্বরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, সরকারের কাছ থেকে বেতন নিয়ে তারা সরকারকে বিপদে ফেলার জন্যই ষড়যন্ত্র করছেন। এ সময় তিনি নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় জড়িত থাকার ঘটনায় জামালপুরের সাবেক জেলা প্রশাসক (ডিসি) এবং বর্তমানে সাংবাদিককে মধ্যরাতে সাজা দেওয়ার ঘটনায় কুড়িগ্রামের ডিসির কাজ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু কিছু আমলা দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রধানমন্ত্রীর সেই কাজকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করছেন। দেশের কিছু কিছু ডিসির আচরণ দেখে মনে হয়ে তারা মোগল সম্রাটের মতো আচরণ করছেন।

এর আগে মধ্যরাতে বাড়িতে হানা দিয়ে ধরে নিয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের (মোবাইল কোর্ট) কারাদণ্ড প্রদানের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়েছে হাইকোর্টে। তিনি এ রিটের পক্ষে আদালতে শুনানি করবেন।

রোববার (১৫ মার্চ) বাংলা ট্রিবিউনের নির্বাহী সম্পাদক হারুন উর রশীদের পক্ষে আইনজীবী ইশরাত হাসান জনস্বার্থে রিটটি দায়ের করেন। ইশরাত হাসান বলেন, হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রশিদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হতে পারে। তাদের সঙ্গে সাংবাদিকের পক্ষে লড়বেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

এছাড়া রিটে ফৌজদারি কার্যবিধি, ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন এর সংবিধানের ৩১, ৩২, ৩৫ এবং ৩৬ অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘনের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিবসহ ১৭ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •