মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী
সুপ্রিম কোর্ট বার থেকে ।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে কার্যনির্বাহী কমিটির ১৪ টি পদের মধ্যে সরকার সমর্থিত বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ মনোনীত সাদা প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী এ.এম.আমিন উদ্দীন সহ ৬ টি পদে বিজয় লাভ করেছে। অপরদিকে, বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ মনেনীত নীল প্যানেলের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী রুহুল কদ্দুস কাজল, কোষাধ্যক্ষ পদে রাগিব রউফ সহ ৮ পদে বিজয় লাভ করেছে।

বিএনপি সমর্থক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের নীল প্যানেলের বিজয়ীরা হলেন, সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল (প্রাপ্ত ভোট-৩০৭৬), নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ’লীগের ব্যারিস্টার শাহ মঞ্জুরুল হক পেয়েছেন-২৮১১ ভোট। সহ সভাপতি অ্যাডভোট আবদুল জব্বার ভূঁইয়া (২৯০৮), কোষাধ্যক্ষ পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপি’র ব্যারিস্টার রাগিব রউফ (প্রাপ্ত ভোট-৩৩২৯), নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ’লীগের মোহাম্মদ এনামুল হক পেয়েছেন ২২৯৫ ভোট। নির্বাচিত সদস্যরা হলেন-অ্যাডভোকেট মার-ই-য়ম খন্দকার (প্রাপ্ত ভোট-৩৮৪২), কক্সবাজারের বাসিন্দা আমিরুল ইসলাম খোকন (প্রাপ্ত ভোট-৩২০৬), মোহাম্মদ মোহাদ্দেস-উল-ইসলাম টুটুল (প্রাপ্ত ভোট-৩১২১), মোহাম্মদ মহসিন কবির (প্রাপ্ত ভোট-৩০৮৩), মোহাম্মদ শরিফ উদ্দিন রতন (প্রাপ্ত ভোট-৩০৩৯)।

অপরদিকে, আ’লীগের ৬ টি পদে বিজয়ীর হলেন- সভাপতি পদে এ.এম.আমিন উদ্দীন (প্রাপ্ত ভোট-৩৩৭০), নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র জয়নাল আবেদীন পেয়েছেন ২৪৫৭ ভোট।
সহ-সভাপতি পদে মোঃ মনিরুজ্জামান মনির (প্রাপ্ত ভোট-২৯৩৯, নির্বাচিত), সহ সম্পাদক (১) পদে মোহাম্মদ ইমতিয়াজ ফারুক মোহাম্মদ (প্রাপ্ত ভোট-৩২০৫ নির্বাচিত), মোহাম্মদ বাকির উদ্দিন ভূইয়া (প্রাপ্ত ভোট-৩০২১, নির্বাচিত), নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র মোহাম্মদ হাসান পেয়েছেন ২৫৮৭ ভোট। আওয়ামীলীগের নির্বাচিত সদস্যরা হলেন-মো. হুমায়ুন কবির (প্রাপ্ত ভোট ৩২৪৯) ও মোহাম্মদ মশিউর রহমান (প্রাপ্ত ভোট ৩১০৪)।

এবারের নির্বাচনে পৃথক ২ টি প্যানেলে ২৮ জন, স্বতন্ত্র ৩ জন সহ মোট ৩১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ১১ ও ১২ মার্চ, বুধবার ও বৃহস্পতিবার ২ দিন ব্যাপী ভোট গ্রহন করা হয়। এই নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২০-২০২১ বর্ষের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হয়। নির্বাচনে ৭৭৮১ জন ভোটারের মধ্যে দুইদিন দুইদিনে ৫৯৪০ জন ভোটার ভোট প্রদান করেন।

দেশে যখন সকল নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ, সেখানে নির্বাচনের মাধ্যমে মতামত প্রকাশের স্বচ্ছ ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনে নির্বাচনে চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে। নেই কোন সরকারি প্রভাব, নেই কোন জাল ভোট, নেই প্রভাবশালীদের অনৈতিক প্রভাব, নেই আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোন অযাচিত তৎপরতা, নেই ইভিএম নিয়ে বিতর্ক। সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে প্রার্থীর যোগ্যতা, গ্রহনযোগ্যতা, নিজ ফোরামের ইমেজ উপর ভিত্তি করে দেশে পেশাজীবীদের মর্যাদাপূর্ণ ও সর্ববৃহৎ এই সংগঠনের প্রতিনিধি নির্বাচন হয়েছে। প্রার্থীরা নিজ সংগঠনের পাশাপাশি নিজস্ব ইমেজ, ইজম, এলাকা ইত্যাদিও ভোটারদের কাছে তুলে ধরছেন বিনয় ও অনুরোধের সাথে। ভোটার, দর্শনার্থীদের মুখে মুখে ছিলো সারাদেশে সকল নির্বাচন যদি এভাবে সুষ্ঠু, অবাধ, স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ ও জবাবদিহিমূলকভাবে হতো। প্রার্থীদের আকুতি আর ভোটারদের হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশ, সমর্থকদের জমজমাট প্রচারণা নির্বাচনের গণতান্ত্রিক আমেজ ফুটে উঠে পুরো সুপ্রিম কোর্ট, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি অঙ্গন ও আশে পাশের এলাকায়। ভোটারদের মধ্যে কোন আতংক ও আশংকা নেই। বরং সব ভোটারদের মধ্যে উচ্ছ্বাস ও আনন্দই ছিল বেশী।

এ নির্বাচন পরিচালনার জন্য সাত সদস্যের নির্বাচন উপকমিটি গঠন করা হয়েছে। জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফের নেতৃত্বে কমিটির সদস্যরা হলেন, মো. জসীম উদ্দিন, শরীফ ইউ আহমেদ, মুহাম্মদ সালেহ উদ্দিন, মোহাম্মদ ইলিয়াছ ভূঁইয়া (বিএম ইলিয়াছ কচি), মো. জাহাঙ্গীর আলম ও মোহাম্মদ আশরাফ উজ জামান খান।

উল্লেখ্য, গতবার নির্বাচনেও সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদসহ ছয়টি পদ পেয়েছিল আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেল। অন্যদিকে সম্পাদকসহ ৮টি পদ পেয়েছিল বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী ফোরাম কক্সবাজার এর অভিনন্দন :

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিজয়ী সাধারণ সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, কোষাধ্যক্ষ পদে ব্যারিস্টার রাগিব রউফ, নির্বাহী সদস্য পদে কক্সবাজারের সন্তান অ্যাডভোকেট আমিরুল ইসলাম খোকন সহ নির্বাচিত সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন- সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী ফোরাম, কক্সবাজার এর আহবায়ক অ্যাডভোকেট নুরুল আজিম, যুগ্ন আহবায়ক অ্যাডভোকেট সালাহ উদ্দিন আহমেদ, সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী। এক অভিনন্দন বার্তায় ফোরাম নেতৃবৃন্দ নতুন কমিটির নেতৃত্বে সমিতির কার্যক্রম আরো গতিশীল ও আইনজীবীদের স্বার্থ সুরক্ষা হবে বলে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তাঁরা নব নির্বাচিত কমিটির সার্বিক সফলতা কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •