খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব থেকে
করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক থেকে পবিত্র ওমরাহ ভিসায় নিষেধাজ্ঞার কারণে ক্ষতির সম্মুখীন পবিত্র মক্কা ও মদীনা নগরীর অধিকাংশ ব্যবসায়ী।
এই ধারা অব্যাহত থাকলে অন্তত ৪০ শতাংশ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চরম ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে ধারণা করছে সেখানকার বাসিন্দারা।
সৌদি কর্মকর্তাদের বরাতে আরব নিউজের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।
সংবাদমাধ্যমের ভাষ্যমতে -নিষেধাজ্ঞা অব্যাহত থাকলে হোটেল, এয়ারলাইনস, ক্যাটারিংয়ে মারাত্মক প্রভাব পড়বে।
তবে সৌদি সরকারের ভাষ্যমতে, হজ ও ওমরাহ যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় নিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এখন বিকল্প কোনো সংস্কার আনার কথাই ভাবা হচ্ছে বলে জানালেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
ঘরোয়া হজযাত্রীদের প্রতি সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলেও জানিয়েছে দেশটি। মক্কা শিল্প ও বাণিজ্য চেম্বারের প্রধান আবদুল্লাহ ফিলালি বলেন, মক্কার হোটের খাতে একটি কঠিন মৌসুম পার করতে যাচ্ছে। শহরটিতে প্রায় এক হাজার ৩০০টি হোটেল রয়েছে।
ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে এসব হোটেলকে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে। ফিলালি বলেন, করোনাভাইরাস মহামারীতে দুই শহরের হোটেল খাতে মারাত্মক অর্থনৈতিক পরিণতি বহন করতে যাচ্ছে। কাজেই এই নিষেধাজ্ঞা অব্যাহত রাখা হলে হোটেল খাতকে ৪০ শতাংশ খেসারত দিতে হবে।
তিনি আরও বলেন, মক্কা ও মদিনার আবাসন খাত পেশাগত সংকটে পড়তে যাচ্ছে। আর ওমরাহ নিষেধাজ্ঞা তাতে আরও চাপ বাড়াতে যাচ্ছে।কাজেই এই খাতে কী ঘটতে যাচ্ছে, তা নিয়ে কেউ ভবিষ্যৎদ্বাণী করতে পারছেন না। তিনি বলেন, এই খাত বড় ক্ষতির মুখে পড়তে যাচ্ছে। সামনে পবিত্র মাস রমজান আসছে। ওই সময়টায় সব ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া সম্ভব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •