প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

আন্তর্জাাতিক নারী দিবসকে সম্মান জানিয়ে মহেশখালীতে দিনব্যাপী একটি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প আয়োজন করেছে কক্সবাজারের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান হোপ ফাউন্ডেশন।

বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) উপজেলার বড়মহেশখালী ইউনিয়নের সিপাহী পাড়াস্থ হোপ মেডিকেল সেন্টারে এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ক্যাম্পে নারী-পুরুষ ও শিশুসহ ৯৯৫জনকে ফ্রি চিকিৎসা ও ওষুধ প্রদান করা হয়।

হোপ ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর কেএম জাহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে এই মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএনএফপিএ’র বাংলাদেশ প্রধান ডা. আশা তলকিন সন। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহেশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুইচিং মং মার্মা, হোপ হসপিটালের চীফ মেডিকেল অফিসার মোঃ শহীদ ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহফুজুর রহমান, ইউএনএফপিএ’র মাঠ কর্মকর্তা ডা. আশরাফ ভুঁইয়া, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তাপস দত্ত। এছাড়াও আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউএনএফপিএ’র বাংলাদেশ প্রধান ডা. আশা তলকিন সন বলেন, নারীদেরকে সমধিকার দিতে হবে। নারীদের সমঅধিকার নিশ্চিত করতে সরকারের পাশপাশি সবাইকে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। সমান অধিকার নিশ্চিত করতে নারীদের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে হবে।

মহেশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুইচিং মং মার্মা বলেন, মহেশখালীতে হোপ ফাউন্ডেশনের কার্যক্রমে আমরা সন্তোষ্ট। তারা বিগত ১২ বছর ধরে মহেশখালী স্বাস্থ্য সেক্টরে যে অবদান রাখতে তা প্রশংসার যোগ্য।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহফুজুর রহমান বলেন, সুরক্ষিত সন্তান ডেলিভারির মাধ্যমে একটি সুস্থ্য এবং সুস্থ্য শিশু পাওয়া যায়। তাই সন্তান ডেলিভারি হাসপাতাল বা ক্লিনিকে করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে হোপ ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর কেএম জাহিদুজ্জামান বলেন, নারী অধিকার রক্ষায় নারী-পুরুষ উভয়কে সমানভাবে কাজ করতে হবে। সেই লক্ষ্যে হোপ ফাউন্ডেশন কাজ করে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, নারী ও শিশু স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে কক্সবাজারের কৃতি সন্তান ডা. ইফতিখার মাহমুদ মিনার ১৯৯৯ সালের প্রতিষ্ঠা করেন হোপ ফাউন্ডেশন ফর ওমেন এন্ড চিলড্রন অব বাংলাদেশ। এই ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ক্ষুদ্র পরিসরে যাত্রা কার্যক্রম আজ মহীরূপে পরিণত হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •