শ্যামল রুদ্র , খাগড়াছড়ি : খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় নিজের বাগানের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বিজিবি সদস্য ও গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে বিজিবির গুলিতে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার সকালের দিকে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া।

এ সময় মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মাটিরাঙা সার্কেল) মো. খোরশেদ আলম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকাল সোয়া আটটার দিকে চার নিহতের মরদেহবাহী এ্যাম্বুলেন্স গাজীনগর পৌঁছলে সেখানে এক হৃদয়বিদারক পরিবেশ সৃষ্টি হয়। কান্নার রোল উঠে পুরো গাজীনগরে। লাশ দেখতে বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ জড়ো হয় নিহতদের বাড়িতে। ইতোমধ্যে ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার (৩ মার্চ) রাতেই বড়গুনার বেতাগী উপজেলার দক্ষিণ বাসন্ডা গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়ে নিহত বিজিবি সদস্য মো. শাওন খান এর মরদেহ।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (৩ মার্চ) নিজের বাগানের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে মাটিরাঙার গাজিনগরে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। এসময় বিজিবি সদস্যরা গুলি করলে ঘটনা স্থলেই মারা যায় সাহাব মিয়া ও তার ছেলে মো. আকবর আলী। এসময় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বিজিবি সদস্য শাওন, স্থানীয় আহাম্মদ আলী, মফিজ মিয়া এবং মো. হানিফ মিয়াকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে সেখানেই মারা যায় বিজিবি সদস্য শাওন ও আহাম্মদ আলী। এদিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায় মো. মফিজ মিয়া।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •