মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার সদর উপজেলায় মানবাধিকার উন্নয়নের লক্ষ্যে মানবাধিকার বিষয়ে সংবেদনশীলতা তৈরীতে পুলিশ প্রশাসন, কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম এবং আনসার- ভিডিপির সাথে এক যৌথ সভা অনুষ্টিত হয়েছে। ইউএনডিপি, একলাব, কক্সবাজার সিএসও, এনজিও হিউম্যান রাইটস কোয়ালিশন এর সহযোগিতায় বুধবার ৪ মার্চ কক্সবাজারের একটি হোটেলের সভা কক্ষে অর্ণব’র কক্সবাজারের পরিচালক-(কর্মসূচী) নাসির উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সিএসও, এনজিও হিউম্যান রাইটস কোয়ালিশন এর চেয়ারম্যান আবু মোরশেদ চৌধুরী খোকা।

সভায় প্রধান অতিথি বলেন, শিশু শ্রম আইন পরিপন্থী কোন কাজ করা যাবে না, বিশেষ করে শিশুদেরকে দিয়ে রিকশা চালানো যাবে না, কক্সবাজারে শুটকী পল্লীতে শিশু শ্রম বেশি দেখা যায়, কোথাও খাদ্যে কেমিক্যাল মেশালে দ্রুত পুলিশকে জানানোর জন্য তিনি অনুরোধ করেন। বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতাসমূহ প্রাপ্তিতে সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে হবে। সর্বোপরি সব ধরনের মানবাধিকার সুরক্ষায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের সকলের দায়িত্ব ও কর্তব্য। তিনি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহের সদস্যদের জন্য এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ আয়োজন করার ব্যাপারে পরিকল্পনা নেওয়ার কথা বলেন। পাশাপাশি এ সভা আয়োজন করার জন্য অর্ণব কক্সবাজার কে তিনি ধন্যবাদ জানান। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মাসুম খান বলেন, পুলিশ প্রশাসন মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। বিশেষ করে টোল ফ্রি ৯৯৯, ৩৩৩, ১০৯৮ নম্বরে ফোনের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক সেবা নেওয়া উল্লেখযোগ্য একটি উদ্যোগ, মানবাধিকার রক্ষায় পুলিশের অনেক কাজ প্রকাশ পায় না, যা পুলিশ নিয়মিত করে থাকে। তিনি বলেন, গঠনমূলক কাজে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

সভায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম নেতৃবৃন্দ বলেন, পুলিশের পাশাপাশি সহযোগি হিসেবে কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামও নির্যাতিত মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসে। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, অর্ণব কক্সবাজারের প্রধান নির্বাহী মোঃ নুরুল আজিম, দৈনিক কক্সবাজার প্রতিদিন পত্রিকার প্রকাশক ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম সদর উপজেলা শাখার যুগ্ন সম্পাদক মোঃ রিয়াদ, একলাবের প্রোগ্রাম অফিসার জুলফিকার আলী ভুট্টো। সভায় মতামত ব্যক্ত করেন, কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাংবাদিক শাহীন মাহমুদ রাসেল, মমতাজ শফিনা আজিম, ফিরোজ উদ্দিন, আনসার-ভিডিপির মনোয়ারা বেগম মনি, আনছারুল হক, অর্নবের সরওয়ার আলম। তারা মাদকাসক্ত ব্যক্তির বিষয়, বাল্যবিবাহের ব্যপারে, স্কুলে ধুমপান করা বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানানোও মানুষের অধিকার রক্ষায় ভূমিকা রাখে বলে উল্লেখ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •