আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনাভাইরাসে প্রাণহানির সংখ্যায় ইরানকে ছাড়িয়ে এখন দ্বিতীয় অবস্থানে ইউরোপের দেশ ইতালি। মঙ্গলবার একদিনে আরও ২৭ জন মারা যাওয়ায় দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৯ জন, যা চীনের বাইরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। ইরানে মারা গেছেন ৭৭ জন।

এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকেও ইরানকে প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছে ইতালি। ইরানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২ হাজার ৩৩৬ জন, বিপরীতে ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ২৬৩।

ইতালির নাগরিক সুরক্ষা বিভাগের প্রধান অ্যাঞ্জেলো বোরেলি জানান, দেশটিতে এ পর্যন্ত ১৬০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

এদিকে, ইউরোপের আরেক দেশ ফ্রান্সেও নতুন করে ১৪ জনের শরীরে নভেল করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০৪ জন। সেখানে অন্তত চারজন কোভিড-১৯ রোগী মারা গেছেন।

করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়েছে জার্মানিতেও। দেশটিতে মোট ১৯৬ জন এনসিওভি-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন। সুইজারল্যান্ডে ৫৫ জন ও স্পেনে ৪৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে।

এ পর্যন্ত বিশ্বের অন্তত ৭৬টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এর মধ্যে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ভাইরাসটির উৎসস্থল চীনে। দেশটির মূল ভূখণ্ডে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৯৮১ জন মারা গেছেন, আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ৮০ হাজার ২৭০ জন।

চীনের বাইরে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা দক্ষিণ কোরিয়ায়। সেখানে অন্তত ৫ হাজার ৩২৮ জনের শরীরে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস পাওয়া গেছে, মারা গেছেন ৩২ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •