প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

স্বধর্ম পরিপালনের মাধ্যমে একজন সঠিক মানুষ হওয়া যায়। ধর্মীয় চেতনায় জাগ্রত হয়ে সমাজ ও দেশের জন্য আত্মনিয়োগ করতে হবে। আর সেজন্য প্রথম প্রয়োজন ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়া। মহেশখালীর হোয়ানক রাজুয়ারঘোনা বড়ছড়া সুশীল পাড়া শিব মন্দির প্রাঙ্গনে যুব উন্নয়ন কমিটির উদ্যোগে অষ্টপ্রহরব্যাপি মহানামযজ্ঞের প্রারম্ভে মহতি ধর্মসভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন। হোয়ানক রাজুয়ারঘোনা বড়ছড়া সুশীল পাড়া সমাজ কমিটির সাবেক সভাপতি মধুসুদন সুশীলের সভাপতিত্বে উক্ত মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি ছিলেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি এবং জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবুল শর্মা। প্রধান ধর্মীয় আলোচক ছিলেন উখিয়া ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অজিত দাশ। সম্মানিত অতিথি ছিলেন-কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের কর্মকর্তা সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপম। বিশেষ ধর্মীয় আলোচক ছিলেন মহেশখালী ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক আশীষ কুমার চক্রবর্তী, গীতা পাঠক দয়াল হরি শীল ও হোয়ানক রাজুয়ারঘোনা বড়ছড়া সুশীল পাড়া সমাজ কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক রবিন্দ্র লাল সুশীল। শুভেচ্ছা বক্তব্যে রাখেন-মহোৎসব উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি পলাশ কান্তি সুশীল, সাধারণ সম্পাদক বিকাশ কান্তি সুশীল ও অর্থ সম্পাদক সুমন কান্তি সুশীল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •