নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার জেলায় আইন শৃংখলার উন্নতি এবং সেবা, সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য টানা দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি বিপিএম (সেবা) পদক পাওয়ায় পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনকে আইডিয়াল প্রিন্টার্স এর পক্ষ থেকে ‘সম্মাননা স্মারক’ প্রদান করা হয়েছে।
৩ মার্চ সন্ধ্যায় পুলিশ সুপারের কার্যালয় শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে সম্মাননা স্মারক প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন -আইডিয়াল প্রিন্টার্স এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর (এমডি) মোহাম্মদ আলম মাসুদ, ম্যানেজিং পার্টনার সাংবাদিক এমআর মাহবুব, ইমাম খাইর ও আসাদুজ্জামান নূর।
জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি ও বাংলাদেশ পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করায় এসপি এবিএম মাসুদ হোসেনকে আইডিয়াল প্রিন্টার্স এর পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।
কর্মে অনুপ্রেরণা দেয়ায় আইডিয়াল প্রিন্টার্সকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এসপি মাসুদ।
সেইসঙ্গে আইডিয়ালের সৃজনশীল ও মানসম্মত কাজের প্রশংসাও করেন।
উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে দেশের সেরা পুলিশ সুপার হিসেবে এবিএম মাসুদ হোসেনকে গত ৭ জানুয়ারী ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে আনুষ্ঠানিকভাবে পদক প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
১০২ জন উড়ন্ত ইয়াবা ডনদের পাখা ভেঙ্গে আত্মসমর্পন ও ৯৬ জন জলের কুমির জলদস্যু ও অস্ত্রের কারিগরকে আত্মসমর্পন করিয়ে “পুলিশের হিরো” হন এবিএম মাসুদ হোসেন।
সাহসী এই কাজের জন্য দেশজুড়ে সর্বস্তরের মানুষের সাধুবাদও পেয়েছেন তিনি।
বরিশালের কৃতি সন্তান এবিএম মাসুদ হোসেন ২৪ তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচের নিয়োগপ্রাপ্ত একজন মেধাবী ও চৌকস পুলিশ অফিসার। পুলিশ সদর দপ্তরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (টিআর) পদে দায়িত্বপালনকালীন সময়ে ২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর তিনি পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি পান।
২০১৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের পুলিশ সুপার হিসাবে যোগদান করেন এবিএম মাসুদ হোসেন।
নিজের কর্মদক্ষতা দিয়ে তিনি ইতোমধ্যে জেলাবাসীর কাছে স্থান করে নিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •