মমতাজ উদ্দিন আহমদ, আলীকদম
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) এর কারিগরী সহযোগীতায় বান্দরবানের আলীকদমে কারিতাসের এগ্রো-ইকোলজী-সিএইচটি প্রকল্পের উদ্যোগে টমেটোর টেকসই প্রযুক্তির মাঠ দিবস পালিত হয়েছে। গত রবিবার উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের উত্তর পাট্টাখাইয়া গ্রামে এ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাকৃবি’র উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল ইসলাম ও মাষ্টার্স ছাত্রী শারমিন আক্তার শোভা উপস্থিত ছিলেন।

এতে বক্তব্য রাখেন কারিতাসের কর্মসূচী কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হক, আলীকদম প্রেসক্লাবের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমদ ও ইউপি মেম্বার আলী হোসেন। এছাড়াও প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এসএম জিয়াউদ্দিন জুয়েল, কারিতাসের মাঠ সহায়কবৃন্দ ও উপকারভোগীরা এ মাঠ দিবসে উপস্থিত ছিলেন।

কারিতাসের এগ্রো-ইকোলজি-সিএইচটি প্রকল্পের উপকারভোগী নুরুল কাদেরের কৃষিক্ষেতে টমেটের বারি-১৫ ও বারি-২ জাতের উৎপাদিত টমেটো নিয়ে এ মাঠ দিবস করা হয়। এ দু’জাতের টমেটো উৎপাদনে রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের ব্যবহার কমিয়ে জৈবসারের পরিমাণ বাড়িয়ে টমেটোর চাষ করা হয়। এতে দেখা যায়, জমিতে ৫৭% শতাংশ জৈবসার ব্যবহার করে এ জাতের টমেটোর বাম্পার ফলন হয়েছে। এ এলাকায় তামাক চাষের ভয়াল বিস্তার রোধে উন্নতমানের এ টমেটোর চাষ করানো হয়। মাঠ পরিদর্শন শেষে বাকৃবি’র প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল ইসলাম ও মাস্টার্স ছাত্রী শোভা এ এলাকায় টমেটোর বারি-১৫ জাতটি চাষ উপযোগী হিসেবে চিহ্নিত করেন।

কারিতাস সূত্রে জানা গেছে, উন্নতজাতের টমেটোর এ ধরণের গবেষণা পার্বত্য চট্টগ্রামের এগ্রো-ইকোলজী প্রকল্পের মাধ্যমে শুরু হয়েছে।

প্রকল্পের মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের সামর্থ্য বৃদ্ধি করা, পরিবেশ বান্ধব পদ্ধতিতে ফল ও ফসল ফলানো ও মানুষের পুষ্টি ক্ষমতা বৃদ্ধি করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর উদ্দেশ্যে এ মাঠ দিবস করা হয়। মাঠ দিবসের অনুষ্ঠানে টমেটো থেকে বীজ সংগ্রহ করার কৌশল হাতে-কলমে শেখান প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল ইসলাম। পরবর্তীতে সুবিধাভোগী সবাইকে নিরাপদ খাদ্য হিসাবে টমেটো বিতরণ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •