প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের অধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সালাহউদ্দিন আহমদ। তিনি সোমবার (২ মার্চ) গণমাধ্যমে পাঠানো এক শোক বার্তায় তিনি মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন। শোক বার্তায় সালাহ উদ্দিন আহমদ বলেন, ওবায়দুর রহমানের কর্মজীবনে ছিলেন অত্যান্ত সৎ ও ন্যায়পরায়ন মানুষ। তিনি সর্বদা কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পড়ালেখার মান বাড়ানো নিয়ে চিন্তা করতেন । ব্যক্তি জীবনে তার তেমন চাওয়া পাওয়া ছিলনা। এরকম শিক্ষাবান্ধব পরোপকারী শিক্ষকের মৃত্যুতে পেকুয়াবাসীর অপূরনীয় ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন। তিনি আরো বলেন, আমরা দিনদিন দেশের জ্ঞানী মানুষগুলোকে হারাচ্ছি তাদের শুন্যতা আমাদের ভাবিয়ে তুলছে। উল্লেখ্য যে, অধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমান আজ সোমবার ভোরে ব্রাহ্মণবাডিয়া সদর উপজেলার সহিলপুর গ্রামের মাইজ পাড়া এলাকায় নিয়মোনিয়ার আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেন। তিনি ওই এলাকার মৃত মতিউর রহমানের পুত্র। মত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। তিনি ২০১১ সালে পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগ দিয়ে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি কর্মরত ছিলেন। তার মৃত্যুতে কলেজের ছাত্রছাত্রীও সহকর্মীদের মনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •