তানভীর তুহিন , মালয়েশিয়া থেকে ।

মালয়েশিয়ার রাজনীতিতে এক বিশাল ঝড় বয়ে গেলো! এক ঝড়ে মাহাথির মোহাম্মদ পদত্যাগ করলেন। মহিউদ্দিন ইয়াসিন নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন। সরকারী জোট ভেঙ্গে যাওয়ায় আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান বিরোধী দলে চলে গেলো। আর নাজিব রাজ্জাকের জোট বারিসান ন্যাশনাল সরকারী দলের অংশ হয়ে গেলো।

মহিউদ্দিন ইয়াসিন নাজিব সরকারে উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। পরে মাহাথিরের নতুন দলে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন। আনোয়ার ইব্রাহিমের সাথে জোট করে নাজিব রাজ্জাককেই পরাজিত করেন। সর্বশেষ মাহাথির সরকারে তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

দলীয় প্রধান পদ থেকে মাহাথিরের পদত্যাগে মহিউদ্দিন প্রেসিডেন্টের পদ পেয়ে যান।  মহিউদ্দিন দলের প্রেসিডেন্ট হয়েই সবকিছু উলট-পালট করে দিয়ে পুরোনো সাথী নাজিব রাজ্জাকের সমর্থন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসে পড়লেন!

বিরোধী নাজিবের সমর্থন নিয়ে মহিউদ্দিনের ক্ষমতা গ্রহণকে মাহাথির বলছেন ‘বিশ্বাসঘাতকতা’। যদিও মাহাথিরের ভূমিকা নিয়েও যথেষ্ট প্রশ্ন তোলার সুযোগ আছে। এটা বিশ্বাসঘাতকতা নাকি মাহাথির মোহাম্মদেরই কৌশল ছিল বুঝতে একটু অপেক্ষায় থাকতে হবে..

তবে আজ সকালে ‘অভিমান’ ভেঙ্গে মাহাথির-আনোয়ার আবারো ঐক্যের ডাক দিয়েছেন! মালয়েশিয়ার রাজনীতিতে এই ঝড়ের প্রভাব সহজে কাটবে বলে মনে হচ্ছে না। হয়তো আবারো নতুন ঝড়ে নতুন মেরুকরণে ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দু বদলে যাবে! রাজনীতিতে শেষ কথা বলতে আসলেই কিছু নেই….

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •