ইমাম খাইর, সিবিএন
ব্যাংকগুলোতে অর্থ সংকট দেখা দিলেও গ্রাহকদের আমানত সঠিকভাবে ফেরত দিতে পারবে ইসলামী ব্যাংক। কারণ, সবচেয়ে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক তাদেরই। তাই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে। গ্যারান্টি দিয়ে বিনিয়োগ করার ক্ষমতা একমাত্র ইসলামী ব্যাংকেরই রয়েছে।
শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারী) কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত ময়দানে ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
ব্যাংকের চট্টগ্রাম দক্ষিণ জোনের প্রধান ও এসভিপি মুহাম্মদ ইয়াকুব আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, ইসলামী ব্যাংকের সাথে ১ কোটি ৩০ লাখ গ্রাহক ও প্রায় ৭ কোটি মানুষের সম্পৃক্ততা রয়েছে। ১৪ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে। যারা শুধু চাকুরি নয়, সেবা দিতেও কমিটেড। তাদের কোন প্রোডাক্টে গ্রাহক হয়রানী ও ঝামেলা নাই। তাই আধুনিক ব্যাংকিং বিশ্বে ইসলামী ব্যাংক শীর্ষে।
ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলায় প্রধান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের এডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা।
তিনি বলেন, নিরাপদ বিনিয়োগের বিশ্বস্ত ঠিকানা হিসেবে ইসলামী ব্যাংক সর্বশ্রেনীর কাছে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। প্রতিষ্ঠাকাল থেকে আমরা সেই অবস্থান ধরে রাখতে পেরেছি।
মেলার শুরুতে ইসলামী ব্যাংক কক্সবাজার শাখা ব্যবস্থাপক ও ভিপি মুহাম্মদ জামাল উদ্দীন স্বাগত বক্তব্য রাখেন। শুরুতে তিনি বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ভাষা শহীদদের স্মরণ করেন।
তিনি বলেন, ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা বাংলাদেশে প্রথম তারা চালু করেছে। যার মাধ্যমে গ্রাহকরা হাতের মুঠোয় সেবা পাবে। গ্রাহকদের কষ্ট যেমন কমবে সেবাও বাড়বে।
মেলায় বিশেষ অতিথি ছিলেন -ইসলামী ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও কোম্পানী সেক্রেটারী জে কিউ এম হাবিবুল্লাহ, কর্পোরেট ইনভেস্টমেন্ট ডিভিশনের ডিভিশন-১ প্রধান ও এসইভিপি মোহাম্মদ সাব্বির।
বক্তব্য রাখেন -সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ভিপি ও কক্সবাজার শাখা প্রধান মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড কক্সবাজার শাখার ব্যবস্থাপক ও এভিপি আব্দুল আজিজ।
গ্রাহকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর কাসেম।
কক্সবাজারে প্রথম বারের মতো অনুষ্ঠিত ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলায় ৫টি বেসরকারি ইসলামী ব্যাংক অংশ নেয়। এতে লিড ব্যাংকের দায়িত্ব পালন করে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড। ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড এবং এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক লিমিটেড দিনব্যাপী মেলায় অংশগ্রহণ করে।
মেলা উপলক্ষ্যে সকাল ১০ টার দিকে মোটর শোভাযাত্রা কক্সবাজার কেন্দ্রিয় ঈদগাহ ময়দান থেকে শুরু হয়। কলাতলী হয়ে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল ঘুরে মোটর শোভাযাত্রাটি পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে পৌঁছে শেষ হয়। সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত চলবে ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলা। এতে ২৫ জন সেবা গ্রহণকারী ও ৫ সেবাদাতাকে পুরস্কৃত করা হবে বলে জানিয়েছেন শাখা ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ জামাল উদ্দীন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •