সিবিএন ডেস্ক:
বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু একুশে পদকপ্রাপ্ত রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের অধ্যক্ষ উপ-সংঘরাজ সত্যপ্রিয় মহাথেরের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উদযাপনে বিএনপির চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেবেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

আগামী ২৭-২৯ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজারের রামুর কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারে তিন দিনব্যাপী অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উদযাপিত হবে।

বিএনপির মহা-সচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. সুকোমল বড়ুয়া এই বৌদ্ধ পণ্ডিতের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেবেন।

শায়রুল বলেন, ২৮ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দুপুর ১২ টায় উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন বিএনপি নেতারা।

গত বছরের ৩ অক্টোবর সত্যপ্রিয় মহাথের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

সত্যপ্রিয় মহাথের ১৯৩০ সালের ১০ জুন কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলার ফতেখারকুল ইউনিয়নের পশ্চিম মেরংলোয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সালে তিনি প্রবজ্যা ধর্ম দীক্ষিত হয়ে সত্যপ্রিয় নাম ধারণ করেন। পরের বছর তিনি ভিক্ষু ধর্মে দীক্ষিত হন। ১৯৫৪ সালে উচ্চ শিক্ষার জন্য মায়ানমার পাড়ি জমান। সেখানে তিনি দশ বছর লেখাপড়াা, গ্রন্থ রচনা ও সাধনা করেন।

২০০৬ সালে বাংলাদেশি বৌদ্ধ ভিক্ষুসংঘের সর্বোচ্চ ধর্মীয় সংগঠন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতির পদ লাভ করেছিলেন। সত্যপ্রিয় বৌদ্ধ ধর্ম বিষয়ক অনেক গবেষণাধর্মী গ্রন্থ রচনা করেছেন।

তিনি ত্রিপিটকের অভিধর্ম পিটকের অন্তর্গত ‘চুল­বর্গ’ গ্রন্থ পালি থেকে বাংলায় অনুবাদ করেছেন। গ্রন্থটি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চ শিক্ষায় সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। তিনি সমাজসেবায় একুশে পদক (২০১৫), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বৌদ্ধ ছাত্র সংসদ কর্তৃক শান্তি পুরস্কার (২০১০), সমাজসেবায় অবদানের জন্য মায়ানমার থেকে ‘অগ্গমহাসদ্ধর্মজ্যোতিপতাকা’ (২০০৩) সম্মাননাসহ বিভিন্ন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •