এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চাল বোঝাই একটি কভার্ডভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে উল্টে গিয়ে চালক ও হেলফারসহ দুইজন আহত হয়েছেন। সোমবার (২৪ র্ফেরয়ারি) ভোর ৫টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার বানিয়ারছড়াস্থ চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। কভার্ডভ্যানটি সিলেটের হবিগঞ্জ থেকে চাল বোঝাই করে কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে আসছিলো। দূর্ঘটনায় আহতরা হলেন, সিলেটের হবিগঞ্জ উপজেলার আব্দুস ছোবহানের ছেলে ও কভার্ডভ্যান চালক মো. সোলায়মান (৫৫) ও গাড়ির হেলফার কিশোরগঞ্জ জেলার মো. সুরুজ মিয়ার ছেলে মো. সাইকুল (২৫)।

দূর্ঘটনা কবলিত কভার্ডভ্যানের চালক মো. সোলয়মান বলেন, গত রবিবার দুপুরে সিলেটের হবিগঞ্জ থেকে চাল বোঝাই করে কক্সবাজারের উখিয়াস্থ রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে আসছিলেন তিনি। সোমবার ভোর ৫টার দিকে চাল বোঝাই কভার্ডভ্যানটি নিয়ে তিনি চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার বানিয়ারছড়াস্থ চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন এলাকায় পৌঁছলে পেছনদিক থেকে গ্রীণ লাইন পরিবহনে একটি যাত্রীবাহি বাস তার কভার্ডভ্যানটিকে চাপা দেয়। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পশ্চিম পার্শ্বে কভার্ডভ্যানটি উল্টে গিয়ে এ দূর্ঘটনা ঘটে। কভার্ডভ্যান চালক মো. সোলয়মান আরো বলেন, চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কটি সংস্কার করা হলেও সড়কের পাশের এজিনগুলোর (মুল সড়কের পাশের খালি জায়গা) সংস্কার করা হয়নি। ফলে এটি এখন মুল সড়কের চেয়ে অনেক নীচু। যে কারণে মহাসড়কে চলাচলরত গাড়িগুলো অন্যগাড়িকে সাইড দিতে গিয়ে গাড়ির চাকা সড়কের পাশে এজিনের গর্তে পড়ে গিয়ে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা ঘটছে। সম্প্রতি একই এলাকায় স্টার লাইন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস উল্টে গিয়ে বাসের চারযাত্রী নিহত ও ১৫জন আহত হয়।

চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির আইসি ইন্সপেক্টর আনিসুর রহমান বলেন, সোমবার ভোরে চট্টগাম কক্সবাজার মহাসড়কের বানিয়ারছাড়া এলাকায় চাল বোঝাই একটি কভার্ডভ্যান সড়কের পাশে খাদে পড়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এসময় গাড়িটি সড়কের পাশে উল্টে যায়। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তিনি আরো বলেন, দূর্ঘটনা কবলিত গাড়িটির কাগজপত্র যাচাই বাচাই করা হচ্ছে। কাগজপত্র সঠিক পাওয়া না গেলে এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •