রামুর গর্জনিয়ার পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রপরিষদ নির্বাচন-২০২০ এর দৃশ্য।

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :

ভোটকেন্দ্র, ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার সবই আছে। নির্বাচন পরিচালনা ও আইনশৃঙ্খলার জন্য আছেন নির্বাচন কমিশনার, প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও নিরাপত্তাকর্মীরা। কেন্দ্রে কেন্দ্রে নিযুক্ত আছেন প্রার্থীদের পোলিং এজেন্ট। সব আয়োজনই জাতীয় নির্বাচনের মতো। তবে জাতীয় নির্বাচনের মতো উত্তেজনা দাঙ্গা-হাঙ্গামা নেই।

এটা কক্সবাজারের রামু উপজেলার স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচনের চিত্র। উপজেলার ৮৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে কয়েক দিন ধরে প্রচার-প্রচারণা চালায় নির্বাচনের প্রার্থী খুদে শিক্ষার্থীরা।

সকাল নয়টা থেকে শুরু করে বেলা একটা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোট গ্রহণ। উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি ঘটে।
সকালে ১০টায় রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারদের লম্বা সারি। ভোট দেওয়ার অপেক্ষায় চুপচাপ সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে শিক্ষার্থীরা। দুটি কক্ষে ব্যালট পেপার, ব্যালট বাক্স ও গোপন বুথ তৈরি করা হয়েছে। ভোটকেন্দ্রের বাইরে মোতায়েন রয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। তবে তারা আসলে স্কুলেরই শিক্ষার্থী।

এ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘এসব কোমলমতি শিশুদের নির্বাচনের পরিবেশ দেখে নিজেদের মাথা অবনত করতে ইচ্ছা হয়। তাদের এমন সুশৃঙ্খলভাবে ভোট দেওয়া দেখে অনেক কিছু শেখার আছে। এখানে প্রকৃত গণতন্ত্রের চর্চা ফুটে উঠেছে বলে মনে করি।’

দুপুরে ভোট গণনা শেষে পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণি থেকে মিফতাহুল জান্নাত ও মোহাম্মদ সাদেক, চতুর্থ শ্রেণি থেকে তর্কি রায়সা মুমিতু ও সাদ্দাম হোসেন এবং তৃতীয় শ্রেণি থেকে আসিফা মুনতা তোহা ও মনিরুল ইসলাম নির্বাচিত হয়।

রামু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গৌর চন্দ্র দে বলেন- নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে নিজ নিজ বিদ্যালয়ের শিক্ষার মানোন্নয়ন, পরিবেশ সংরক্ষণ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদ্যাপন, বিদ্যালয়ের আঙিনা, বাগান তৈরিসহ বিভিন্ন উন্নয়ন ও গঠনমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমা বলেন, শিশুকাল থেকেই শিক্ষার্থীদের মাঝে গণতান্ত্রিক মনোভাব গড়ে তোলা এ নির্বাচনের লক্ষ্য।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •