সিবিএন ডেস্ক
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) নির্দেশনা অমান্য করে আইন বিভাগে ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করায় বেসরকারি সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত তার আদেশে বলেছেন: ‘জরিমানার ওই অর্থ বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের অনুকূলে জমা দিতে হবে এবং জমার সেই রশিদ দেখানো সাপেক্ষে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির ৮৬ শিক্ষার্থী আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি বার কাউন্সিল পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। তবে জরিমানার অর্থ কোনোভাবেই শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া যাবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিল থেকে এই অর্থ দিতে হবে।’
বিজ্ঞাপন

আজ আদালতে বার কাউন্সিলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ ওয়াই মশিউজ্জামান ও এসএম কফিল উদ্দিন। আর শিক্ষার্থীদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আশীক আল জলিল।

এর আগে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির ৮৬ শিক্ষার্থীর করা রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট তাদের আইনজীবী তালিকাভুক্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নিবন্ধন ও ফরম পূরণের সুযোগ দিতে বার কাউন্সিলকে নির্দেশ দেন এবং রুল জারি করেন। এরপর হাইকোর্টের সে আদেশের বিরুদ্ধে বার কাউন্সিল আপিল বিভাগে আবেদন করে। সে আবেদনের শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগ সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্যকে বৃহস্পতিবার আদালতে আসতে বলেন। সে অনুযায়ী সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য আজ আদালতে হাজির হন এবং তার বক্তব্য শোনার পর আদালত আদেশ দেন।

এর আগে একই কারণে গতকাল বেসরকারি সিটি ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তার আগে আরো কয়েকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে একই ধরনের জরিমানার আদেশ দিয়েছেম দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •