মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার শহরের শহীদ স্মরণী রোডের গ্রীণ কটেজ থেকে সাড়ে ৪ হাজার ক্যান বিদেশি বিয়ার রাখার দায়ে আদালত কটেজের নিরাপত্তা প্রহরী মোহাম্মদ বদিউল আলমকে ৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে। কক্সবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ-২ মাহমুদুল হাসান মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারী এ রায় প্রদান করেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ হলো-২০১০ সালের ১৭ এপ্রিল কক্সবাজার শহরের শহীদ স্মরণীস্থ (সার্কিট হাউস রোড) শহীদ মিনারের সামনে গ্রীণ কটেজ নামীয় গেস্ট হাউজ থেকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এক অভিযান চালিয়ে ৪৫৬০ ক্যান বিদেশি বিয়ার উদ্ধার করে। এ উদ্ধারের ঘটনায় চট্টগ্রামের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক ইদ্রিস আলী বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় ২৯/২০১০ নম্বর মামলা দায়ের করা হয়। যার জিআর মামলা নম্বর- ২৬৪/২০১০ এবং এসটি মামলা নম্বর-৩৬০/২০১০ ইংরেজি। মামলায় সাক্ষ্য, যুক্তি তর্ক ও শুনানি শেষে মামলার একমাত্র আসামি মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের মগরিয়াকাটা গ্রামের সুলতান আহমদের পুত্র ও কটেজের নিরাপত্তা প্রহরী মোহাম্মদ বদিউল আলমকে ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ২২(গ) ধারায় কক্সবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ-২ মাহমুদুল হাসান ৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থ দন্ড প্রদান করা হয়। অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো অতিরিক্ত ৩ মাস কারাদন্ড প্রদান করা হয়। রাষ্ট্র পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এপিপি ও সিনিয়র আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এ.কে ফজলুল হক চৌধুরী এবং আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আলহাজ্ব আয়াছুর রহমান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •