শাহীন মাহমুদ রাসেল :

সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে শিশু শ্রমের বিষয়টি উদ্বেগজনক বলে জানিয়ে শিশু শ্রম বিষয়ে বিদ্যমান আইন প্রয়োগের দাবী জানানো হয়েছে হার্টিকালচারে অনুষ্ঠিত ক্লাইম্ব প্রকল্পের সিভিল সোসাইটির অর্গানাইজেশনে দুইদিন ব্যাপী এক কমর্শালায়।

উইনরক ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি সংগঠনের সহযোগীতায় এ্যালায়েন্স ফর কোঅপারেশন এন্ড লিগ্যাল এইড বাংলাদেশ (একলাব) এর আয়োজনে ‘শিশু শ্রম সংশ্লিষ্ট বিদ্যমান আইন ও নীতিমালা বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধি’ বিষয়ক কক্সবাজার সদরের ঝিলংজায় হার্টিকালচারে অনুষ্ঠিত দুই দিনের এই কর্মশালা উদ্ভোধন করেন কক্সবাজার জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তা সুব্রত বিশ্বাস। এতে জেলার বিভিন্ন এনজিওতে কর্মরত কর্মকর্তা কর্মচারীরা অংশ গ্রহন করেন।

কর্মশালায় বলা হয় কক্সবাজার শহরতলীর নাজিরার টেকের বিশ্বের বৃহত্তম শুঁটকি পল্লীতে কর্মরত তিন সহস্রাধিক শিশু মারাত্মক স্বাস্থ ঝুঁকিতে রয়েছে। শুঁটকি সেক্টরে কর্মরত এসব শিশুরা একদিকে পড়ালেখা বঞ্চিত হচ্ছে অন্য দিকে এরা রয়েছে চরম স্বাস্থ ঝুঁকিতে।

কর্মশালা থেকে শিশু অধিকার বিষয়ে যেসব আন্তর্জাতিক আইনে বাংলাদেশ স্বক্ষর করেছে সে বিষয়ে সরকারের দৃষ্ট আকর্ষণ করা হয়।

কর্মশালায় উইনরক ইন্টারন্যাশনাল এর প্রতিনিধি তানভীর শরীফ ও প্রোগ্রাম অফিসার আসমা আক্তার বলেন, কক্সবাজারে শিশু শিক্ষার হার এমনিতেই কম। এর উপর এর উপর শুঁটকি পল্লীসহ বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ সেক্টরে উদ্বেগজনক হারে শিশু শ্রমিকের সংখ্যা বাড়ছে।

তারা আরোও বলেন এভাবে চলতে থাকলে ভবিষ্যতে দেশে যোগ্য নাগরিকের শূন্যতা দেখা দেবে। আপনার মাধ্যমে সরকার, এবং অভিভাবকদের উপর প্রভাব পড়তে পারে। এতে করে ঝুঁকিপূর্ণ খাতে শিশু শ্রম কমতে পারে।

কর্মশালা সম্বনয়কারী একলাব এর প্রতিনিধি রাশেদুল হাসান রাশেদ, ক্লাইম্ব প্রকল্পের প্রোগ্রাম কোঅডিনেটর মাহবুব উল আলম ও টি এ অফিসার মোশারফ হোসেন কর্মশালায় বিভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য রাখেন।

দ্বিতীয় দিনের কর্মশালায় সমাপনী বক্তব্য রাখেন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক শফি উদ্দিন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •