ইমাম খাইর, সিবিএন
সুদ ভিত্তিক অর্থনীতি পরিবার ও রাষ্ট্রে কোন দিনই শান্তি আনতে পারে না। সামাজিক সমতা আনয়নে ইসলামী অর্থনীতি তথা যাকাতভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হবে।
কক্সবাজারে দুইদিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক ইসলামী মহাসম্মেলনের প্রথম দিন (শনিবার) প্রধান আলোচক ভারতের জামিয়া কাসেমিয়া শাহী মুরাদাবাদের মুহতামিম আওলাদে রাসুল (সা.) আল্লামা সৈয়দ আশহাদ মাদানী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে রাসূলুল্লাহর সুন্নাহকে অনুসরণ করতে হবে। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কৃষ্টি-কালচার বাদ দেয়ার কারণে সমাজে অনৈতিকতা ও অশান্তি বেড়ে যাচ্ছে। ইহুদি-খ্রিস্টানের কালচার অনুসরন করলে কাল কেয়ামতের ময়দানে কারো মুক্তি মিলবে না।
আল্লামা সৈয়দ আশহাদ মাদানী বলেন, বিশ্বময় শান্তি প্রতিষ্ঠায় মুসলমানদের পারস্পরিক ঐক্য সুদৃঢ় করতে হবে।
আলোচনা বাংলা ভাষায় তরজমা করেন ঢাকা বসুন্ধরা ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের শিক্ষা সচিব মাওলানা মুফতি এনামুল হক কাসেমী।
শনিবার বিকাল ৩টা থেকে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে সম্মেলনের কার্যক্রম আরম্ভ হয়।
ইসলামী সম্মেলন সংস্থা কক্সবাজার জেলা শাখার ৩৫ তম এই সম্মেলনের পৃথক অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন মুফতি মুরশেদুল আলম চৌধুরী ও টেকনাফের হ্নীলা মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আবছার উদ্দিন চৌধুরী।
লালদীঘি জামে মসজিদের পেশ ইমাম ও খতীব মাওলানা ক্বারী আতাউল্লাহ গনির সঞ্চালনায় সম্মেলনে আলোচনা করেন -পটিয়া জামেয়া ইসলামিয়ার মুহতামিম ও ইসলামী সম্মেলন সংস্থা বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা মুফতি আব্দুল হালীম বোখারী, আল্লামা সিবগাতুল্লাহ নুর, লোহাগাড়া রাজঘাটা মাদরাসার সহকারী পরিচালক মাওলানা হাবীবুল ওয়াহেদ, রামু চাকমারকুল মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা হারুন জাদিদ, জোয়ারিয়ানালা মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা এজাজুল করিম ও উখিয়ার মাওলানা কাসেম।
দ্বিতীয় দিনের (রবিবার) আলোচকরা হলেন -ঢাকা বসুন্ধরা ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক মুফতি আরশাদ রহমানী, আল্লামা খোরশেদ আলম কাসেমী, জামেয়া ইসলামিয়া জিরির মুহতামিম আল্লামা তৈয়ব, বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা জুনাইদ আল হাবীব, আল্লামা আব্দুল বাসেত খাঁন।
সম্মেলন সংস্থার নির্বাহী সেক্রেটারী মাওলানা মোহাম্মদ মোহসেন শরীফের সার্বিক তত্ত্বাবধানে দুদিন ব্যাপী এই মাহফিলের প্রথম দিনে কক্সবাজার উমিদিয়া জামিয়া ইসলামিয়ার মুতাওয়াল্লি ও পরিচালক মাওলানা আলী হাচ্ছান চৌধুরী, রামু চাকমারকুল মাদরাসার নায়েবে মুহতামিম মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সিকদারসহ স্থানীয় বরেণ্য আলেমগণ উপস্থিত ছিলেন।
৩৫ তম ইসলামী মহাসম্মেলনে সমাপনী দিনে উপস্থিত থেকে দ্বীনদুনিয়ার নেকি হাসিলের আহবান জানিয়েছেন সম্মেলন সংস্থার কক্সবাজা জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ মুসলিম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •