• সিরাজুল কাদের
    জাপান থেকে

শতাব্দীর আলোকচ্ছটা ভোর, আর প্রতি দশকে পরিবর্তনের হিড়িক, বাৎসরিক পরিক্রমায় মাসিক এবং দৈনিক দিনপ্জীতে গন্ডিবদ্ধ জীবনের এক একটি জীবন প্রচ্ছদের পাতায় পাতায় কতইনা আয়োজন-বিয়োজন। যার ছড়াছড়িতে আমাদের ঘূর্ণায়মান সময়ের গল্প প্রতিনিয়ত উঁকি দেয় জীবন ক্যানভাসে। আর ক্যানভাসের পরতে পরতে লুকিয়ে থাকা একেকটি ক্ষণ; ফ্ল্যাসব্যাক মেমোরীর স্লটগুলোতে রীতিমত ছন্দপতন ঘটায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে। যন্ত্রদানবের নগরে নিয়মিত বসবাস আমার,কর্মের তাগিদ কেমন জানি এতঠুকুন ফুরসত দেয়না আমায় চিত্তের কোথাও খোরাক খুঁজি তবুও তো মানুষ আমি রোবট নই, আবেগ আছে, উচ্ছাস আছে, আছে ভরপুর আনন্দে জীবন উদযাপনের বহুমাত্রিক উত্তেজনা। সময় পেলে বুঁদ হয়ে থাকি খবরের পাতায়, এবং ঐন্দ্রজালিক সোশ্যাল মিডিয়ার রংগিন জগতে। হতচকিত হয়ে কত অনুভব এবং অনুভূতি দিকচক্রবালে বাঁক হারায় বর্তমান এবং অতীতের সোনালী চাদরে মোড়ানো স্মৃতির সিন্দুক। স্মৃতিময় জীবনের পরিবেশ-প্রতিবেশে হাতরাতে থাকি! আনন্দ-বেদনা, সুখ-দু:খ এবং উচ্ছাস-উন্মাদনার ফিরস্তিই যেন মস্তিষ্কের সকল কোষকে উদ্দীপ্ত করে ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় সচল করে তোলে যারপরনাই বিশেষ বিশেষ মূহুর্তগুলো বারে বারে আবেগপ্রবণ করে তুলে। এ মূহর্তগুলোকে ধারন করে বিদেশের প্রথম ভোরেই অশরিরী আত্মায় কেমন জানি সিবিএন ই বন্ধুত্বের দু’হাত প্রসারিত করে এগিয়ে বলে,”বন্ধু একাকী প্রবাস জীবনতো হয়তো কেউ নেই স্বজন তোমার নিকটে; আমিই এসেছি অবারিত সুখের বারতা নিয়ে, আকাশ সমান দু:শ্চিন্তার ফালিতে এক চিলতে রৌদ্দ্রজ্জ্বল আলোকচ্ছটা, নিকষ কালো অমানিশায় দলবেঁধে উড়ে চলা জোনাকীদের উজ্জ্বল আভায় এবং হরেক রকম ঋতুর ভিন্ন আমেজে চিত্ত বিনোদনের আধার গুলো দেশ মাতৃকার কলরব হয়ে পাতায় পাতায় তোমাকে ঐ সুদূরে যোজন যোজন দূরত্বে তোমার জন্ম ধরতীর মন্দিরা শুনাতে।”এমনি এক মোহে আমি প্রতিনিয়ত হারিয়ে যায় সিবিএন’র পাতায় পাতায়। তাবৎ দুনিয়ায় যশ-খ্যাতি কুড়ানো খবরের পাতাতে তেমন মজে উঠার মত অনুসঙ্গগুলো খুঁজে পাইনা যা সিবিএনে পায় ; পাতা খুললেই যেন আমার গ্রামের পাশে একসাথে বেডে উঠা আবদু রহমান, হারুন এবং জিয়াদের উদ্যোক্তা হয়ে উঠার জীবন্ত খবর। মেধার স্বাক্ষরে বিশ্ব এবং দেশ জয় করে গর্বে বুক ভরে উঠা তানযীমুল উম্মাহর ছাত্রের নব্বই দিনে কোরানে হাফেজ হওয়ার চমকপ্রদ তথ্য, হারুন এবং নোমানদের সাব জজ হয়ে উঠার দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী গল্প। ক্রীড়াংগনে যুব বিশ্বকাপ চিনিয়ে আনা হাসান মুরাদদের তৃনমূল পর্যায় থেকে উঠে জাতীয় স্টার হওয়া দৃশ্যপটগুলোর চিত্তাকর্ষক খবরগুলোতো সিবিএন’র বিকল্প কেউ করতে পারেনা। এদিকে কক্সবাজার থিয়টারের স্বপন দাদারা থিয়েটারে জাতীয় পুরস্কার পাই, আমরা জীবন বৃত্তান্ত খুঁজতে তৎপর হয় আচানক দেখি সিবিএন’র পাতায়; যুগযুগ ধরে পিছিয়ে পড়া জনপদে নাট্যংগনের হাল ধরে কক্সবাজারের উর্বর জমিতে তিলে তিলে বেডে উঠা স্বপন দাদাদের জীবন্ত ইতিহাস। আরো কত লেখক, কবি- সাহিত্যক, গুণীজন সহ মেধাবী নব প্রজন্মদের জীবন প্রচ্ছদ সিবিএন’র পাতাতে শব্দের দ্যোতনা-ব্যণ্জনাতে একাকার! এখানেইতো আলো- আধারির সংগোপনে পাঠক এবং সিবিএন একই সূত্রে গাঁথা বাউলের একতারা; কত সুর, তাল এবং লয়ে ছন্দময় জীবনের বাসন্তীয় ফল্গুধারা বয়ে আনে সর্বাগ্রে। আজ জন্মবার্ষিকীতে সিবিএন’র উত্তরোত্তর সফলতা এবং সমৃদ্ধি কামনা করছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •