মিজবাউল হক :

রোহিঙ্গা সমস্যা একটা জাতিগত সমস্যা। পরবর্তীতে এটাকে ধর্মীয় সমস্যা বলে চিহ্নিত করে একশ্রেণির মানুষ ফায়দা লুটেছে। প্রথমদিকে এই ধর্মীয় জিগিরে রোহিঙ্গাদের কিছু আর্থিক লাভ হলেও বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে তা বুমেরাং হয়ে গেছে। মিয়ানমার থেকে দলে দলে নারী-শিশু সহ হাজার হাজার মানুষ প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশ আসছে, তখন তাদের নিদারুণ কষ্ট ও করুণ মুখগুলো এখনো ভাসছে।

১২ ফেব্রুয়ারী সকাল দশটায় কক্সবাজার সুগন্ধা পয়েন্টে সার্ফ ক্লাবে আয়োজিত রোহিঙ্গাদের সমস্যা ও সমাধান নিয়ে একসেমিনারে নানা কথা তুলে ধরেন অংশগ্রহণকারীরা। সেমিনারে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা উপস্থাপন করেন।

অংশগ্রহণকারীরা আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের সবচেয়ে ঝুকির মধ্যে রয়েছে। এরমধ্যে স্বাস্থ্য ঝুকি, বাল্য বিবাহ ও বহু বিবাহ। তাদেরকে এসব বিষয়ে আরও বেশি সচেতন করতে হবে। আগামী বর্ষা মৌসুমে পাহাড় ধস থেকে রক্ষার জন্য সরকার এবং বেসরকারী সংস্থা গুলো আরও আন্তরিক হতে হবে। হুহাইও মায়ামি ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক ড.ফাউজিয়া এরফান আহমেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠান মনিটরিং করেন প্রোগ্রাম ম্যানেজার বেলাল হোসেন। এছাড়াও সেমিনারে সাংবাদিক, স্বেচ্ছাসেবক ও সংস্থার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •