সংবাদদাতা :
ভগবান শ্রীকৃষ্ণের মুখনিঃসৃত বাণী হচ্ছে শ্রীমদ্ভগবদ গীতা। আর সেই গীতাকে জীবনের আদর্শ হিসেবে গ্রহণ করে এগিয়ে যাচ্ছে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সনাতনী শিশু-কিশোরেরা। এতে করে ছোট কাল থেকেই যেমনিভাবে তারা ধর্মের পথে ধাবিত হচ্ছে তেমনিভাবে সকল প্রকার খারাপ কাজ দূরে এসে ধর্মের প্রতি মনোযোগী হচ্ছে সনাতনী সম্প্রদায়ের শিশু কিশোরেরা। এদের মধ্যে একজন হচ্ছে কক্সবাজার শহরের ঘোনারপাড়াস্থ শংকরমঠ স্বামী জ্যোতিশ^রানন্দ গীতা শিক্ষা নিকেতনের ছাত্র অংকুর দাশ। শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠের পাশাপাশি নির্ধারিত বক্তব্যে প্রতিযোগিতা ও রামকথা লিখিত পরীক্ষায়ও কৃতিত্বের সাথে উর্ত্তীণ হয় অংকুর দাশ। সে জীবনের প্রথম প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে ২০১৭ সালের ১৩ আগষ্ট শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায়। সেই প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় স্থান অধিকার করতে না পারলেও জীবনের প্রথম সম্মাননা সনদ লাভ করে অংকুর দাশ। এরপর থেকে ভগবানের আর্শিবাদে আর কোন প্রতিযোগিতায় পেছনে পড়ে থাকতে হয়নি তাকে। মাত্র আড়াই বছরের গীতা শিক্ষায় বয়সে অংকুর দাশ ১৫টি প্রতিযোগিতায় কৃতিত্বের সাথে উর্ত্তীন হয়েছে। এরমধ্যে ১০টি প্রতিযোগিতায় প্রথম, একটিতে দ্বিতীয় ও ৩টিতে অর্জন করেছে তৃতীয় পুরস্কার। এরমধ্যে ২০১৯ সালের ৩০ আগষ্ট শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট আয়োজিত নির্ধারিত বক্তব্যে প্রতিযোগিতায় প্রথম, ২০১৯ সালের ১৭ মার্চ ঘোনারপাড়া সার্বজনীন শ্রীশ্রী কৃষ্ণানন্দধাম গীতা স্কুল কর্তৃক ৩৯তম সার্বজনীন মহতি ধর্মসভা ও ষোড়শ প্রহরব্যাপি হরিনাম মহাযজ্ঞ উপলক্ষে আয়োজিত নির্ধারিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় প্রথম, একই বছর শ্রী শ্রীমৎ স্বামী চিন্তাহরণ পুরী মহারাজ এর প্রতিষ্ঠিত শ্রীশ্রী হরি মন্দিরের ৪৫তম হরিনাম মহাযজ্ঞ উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদগীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম, ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল রাম নবমী উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত রামকথা পরীক্ষায় প্রথম, শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী বাবার ১২৯তম তিরোধান উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম, শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্র-এর ১৩২তম শুভ আবির্ভাব মহোৎসব উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম, তপোবন আশ্রমের উদ্যোগে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম, ২০২০ সালের ২ জানুয়ারী কক্সবাজার শংকরমঠ ও মিশনের উদ্যোগে ৩৬তম বিশ^কল্যাণ গীতাযজ্ঞ উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান, কক্সবাজার শংকরমঠ ও মিশনের উদ্যোগে ৩৫তম বিশ^কল্যাণ গীতাযজ্ঞ উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান, শুভ মহালয়া উপলক্ষে আয়েজিত গীতাপাঠ প্রতিযোগিতায়ও প্রথম স্থান অধিকার করে। এছাড়াও ২০১৮ সালে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম, একই বছর কক্সবাজার শংকরমঠ ও মিশনের উদ্যোগে ৩৪তম বিশ^কল্যাণ গীতাযজ্ঞ উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান, ঘোনারপাড়া সার্বজনীন শ্রীশ্রী কৃষ্ণানন্দধাম গীতা স্কুল কর্তৃক ৩৮তম সার্বজনীন মহতি ধর্মসভা ও ষোড়শ প্রহরব্যাপি হরিনাম মহাযজ্ঞ উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান, শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্র-এর ১৩১তম শুভ আবির্ভাব মহোৎসব উপলক্ষে আয়োজিত সত্যানুসরন পাঠ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান, শ্রী শ্রীমৎ স্বামী চিন্তাহরণ পুরী মহারাজ এর প্রতিষ্ঠিত শ্রীশ্রী হরি মন্দিরের ৪৪তম হরিনাম মহাযজ্ঞ উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদগীতা পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে। ২০১৭ সালে শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্র-এর ১৩০তম শুভ আবির্ভাব মহোৎসব উপলক্ষে আয়োজিত শ্রীমদ্ভগবদ পাঠ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে। এসব ছাড়াও অংকুর দাশ ২০১৭ সালে মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমে অধিনে প্রাক-প্রাথমিক স্তরে কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীও নির্বাচিত হয়। অংকুর দাশের গীতা শিক্ষার হাতেকড়ি হয় কক্সবাজার শহরের ঘোনারপাড়াস্থ শংকরমঠ স্বামী জ্যোতিশ^রানন্দ গীতা শিক্ষা নিকেতনের সম্মাণিত শিক্ষক ও বাগীশিক কক্সবাজার জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক নারায়ন দাশের মাধ্যমে। সেজন্য অংকুর দাশ ও তার পরিবার নারায়ন দাশসহ ওই গীতা শিক্ষা নিকেতনের সকল শিক্ষকদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। পাশাপশি ভবিষ্যত জীবনের জন্য অংকুর দাশ সকলের কাছে আর্শিবাদ কামনা করেছেন। উল্লেখ্য-২০১২ সালের ২৯ জুন জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা শহরের বৌদ্ধ মন্দির সড়কস্থ জাদিরাম পাহাড়ের বাসিন্দা বলরাম দাশ অনুপম সাংবাদিকতা পেশায় জড়িত ও মা সুমা দাশ গৃহিনী।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •