cbn  

ঈদগাঁও সংবাদদাতা :

কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার দিদারুল ইসলামের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন এক ব্যবসায়ী। ৬ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার ঈদগাঁও ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মৃত নজির আহমদের ছেলে বদিউল আলম আকাশ নামের এ ব্যবসায়ী বাদী হয়ে অভিযোগটি দায়ের করেন। অভিযুক্ত দিদারুল ইসলাম ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ইউছুপের খীল এলাকার মৃত ছৈয়দ নুরের ছেলে। তাছাড়া আরো ৩/৪ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে অভিযোগে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বাদী-বিবাদী দু’জনের মধ্যে সুসম্পর্ক বিদ্যমান ছিল। এ সময় ইসলামাবাদ ইউনিয়নে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রস্থ শাহ ফকির বাজারটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট থেকে ইজারা পেয়েছে বলে জানান। তাছাড়া বাজারের ইজারাদারের দায়িত্ব পালন করতে বলে। সে সময় অর্থাৎ গত বছরের ১০ এপ্রিল বিকালে এম,কে ব্রিক ফিল্ডের অফিস থেকে ৪ লক্ষ টাকা গ্রহণ করে ফকিরা বাজারে ইজারাদার হিসেবে পুরো সন দায়িত্ব পালন করতে বলেন। ইত্যবসরে ১৮ দিন দায়িত্ব এবং হাসিল আদায় করার পর, পরের দিন দায়িত্ব থেকে সরে যেতে বলেন। বদিউল আলম আকাশ তাৎক্ষণিক দিদারুল ইসলামের কাছে কারণ জানতে চাইলে কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। পরে খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারে বাজারটি দিদারুল ইসলাম মেম্বারের নামে ইজারা হয়নি৷ পরবর্তীতে দিদার মেম্বার থেকে ৪ লক্ষ টাকা ফেরত চাইলে আজ কাল দেব বলে সময় ক্ষেপন করতে থাকে। ৮ মাস পার হয়ে গেলেও টাকা গুলো ফেরত না দেওয়ায় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের বুঝানো হয়। তারপরও না দেয়ায় কক্সবাজারের পুলিশ সুপার বরাবরের ন্যায় বিচারের আশায় অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানান বদিউল আলম আকাশ। অভিযোগের ব্যাপারে দিদারুল ইসলাম মেম্বারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ঘটনাটি সত্য নয় দাবী করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •