সিবিএন ডেস্ক

কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর ফের বাংলাদেশিদের জন্য খুলছে কাতারের শ্রমবাজার। বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে দেশটির সরকার। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে কাতারের রাজধানী দোহা থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম রেজা। এর আগে শ্রমবাজার নিয়ে আলোচনার জন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল কাতার সফরে যান। তারা সেখানে ২ ফেব্রুয়ারি শ্রমবাজার খোলা নিয়ে কাতারের শ্রমমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। এর দুইদিন পর ৪ ফেব্রুয়ারি দুই দেশের প্রতিনিধি দলের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ফলপ্রসূ আলাপ হয়েছে বলে কাতারের বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে।

কাতারের শ্রমবাজার আবারও উন্মুক্ত হওয়ার বিষয়টি প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদকে অবহিত করেছেন সচিব। এই বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সচিব স্যার দেশে ফিরে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত তুলে ধরবেন।’

দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, উপসাগরীয় অঞ্চলে কাতার বাংলাদেশের অন্যতম বড় একটি শ্রমবাজার। ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য দেশটির শ্রমবাজার সংকুচিত হতে থাকে। সেই সংকুচিত বাজার গত কয়েক মাস থেকে পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। কারণ হিসেবে বলা হয়,  কাতারে ২০২২ সালের ফিফা বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার কারণে বাংলাদেশি কর্মীর চাহিদা কমে যেতে থাকে। কারণ সেখানে ৮০ শতাংশ বাংলাদেশি কর্মী ছিল অদক্ষ।  আর এই প্রেক্ষাপটেই বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া বন্ধ করে দেয় দেশটি।

জানা গেছে, বিশ্বকাপ খেলাকে সামনে রেখে কাতারের বিভিন্ন কারিগরি খাতে লোকবলের চাহিদা রয়েছে। বিশ্বকাপের কাজে নিয়োজিত অদক্ষ কর্মীদের দেশে ফেরত যেতে হবে। পরবর্তীতে কাতারের প্রয়োজন হবে দক্ষ কর্মী। সেই দক্ষ কর্মীর চাহিদার প্রেক্ষিতে কাতার বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিতে চায়। দক্ষ কর্মীর চাহিদার বিষয়ে সেখানে কাতার এয়ারওয়েজসহ কয়েকটি বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেও বৈঠক হয়েছে বলে জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •