বাংলানিউজ
মুক্তিযোদ্ধা মো. আলাউদ্দিনের জন্য ২৬ লাখ টাকায় পাকাঘর তৈরি করে দিয়েছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ৪১ নম্বর দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ডে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘরের চাবি তুলে দেন মেয়র।

শুধু তাই নয়, এ ওয়ার্ডে মুক্তিযোদ্ধার ঘরসহ ২৬ কোটি ১৭ লাখ ৩৩ হাজার টাকার বাস্তবায়িত প্রকল্প উদ্বোধন করেন তিনি। এর মধ্যে রয়েছে ১৬৪টি সড়কের উন্নয়ন, ৩টি সেতু, ৫ হাজার ৯০০ ফুট দীর্ঘ ৪টি গাইড ওয়াল নির্মাণ ও ১টি মুক্তিযোদ্ধার ঘর নির্মাণ।

দক্ষিণ পতেঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলোর পর্দা উন্মোচন করা হয়।

মেয়র বলেন, ২০১৫-১৬ থেকে ২০১৯-২০ অর্থবছরে আমার দায়িত্ব পালনকালীন দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড এলাকায় ১৪৯ কোটি ৪৫ লাখ ৯৭ হাজার টাকার উন্নয়নকাজ বাস্তবায়িত হয়েছে। উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা জাইকা, এডিপি, থোক বরাদ্দ বাবদ অর্থ সহায়তায় ওয়ার্ডে এ উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। আগামীতে ওয়ার্ড এলাকার উন্নয়নে আরও ৫৫ কোটি টাকার উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

বিগত সময়ে এ ওয়ার্ডের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়নকাজ বাস্তবায়িত হয়নি। কেন হয়নি তা আমার চেয়ে এলাকাবাসীই ভালো জানবেন। আমাদের মেয়াদে আমরা যত প্রকল্প গ্রহণ করতে পারছি বিগত সময়ে তা করা যায়নি। এর পেছনে অনেক কারণ জড়িত। আগে বর্তমান সরকারের মতো এত বড় বাজেট বরাদ্দ করা হয়নি। আবার সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধির লক্ষ্য, দূরদর্শিতার বিষয়ও রয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ, শাহীনুর বেগম, চসিকের প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল সোহেল আহমেদ, পতেঙ্গা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উৎপল বড়ুয়া, চসিক নির্বাহী প্রকৌশলী অসীম বড়ুয়া, প্রকৌশলী আবু সাদাত মো. তৈয়ব, প্রকৌশলী আশিকুর ইসলাম, মো. আলী, পতেঙ্গা থানা আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফরিদুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা সালেহ জহুর ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সোহেল মাহমুদ, মো. গিয়াস উদ্দিন, মো. জাবেদ,
স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, মহিলা লীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •