নিউজ ডেস্ক:
ফেসবুকের চিফ অপারেটিং অফিসার শেরিল স্যান্ডবার্গ (৫০) তার বাগদান সম্পন্ন করেছেন। তার বাগদত্তা টম বের্নথাল (৪৬) লস অ্যাঞ্জেলসভিত্তিক কৌশলগত পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান কেলটন গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

বাগদত্তার সঙ্গে নিজের সাদা-কালো একটি ছবি পোস্ট করে নিজেই বিষয়টি জানিয়েছেন ৫০ বছরের ফেসবুকের এই নির্বাহী। লিখেছেন, ‘এনগেজড!!! টম বের্নথাল, তুমি আমার সবকিছু। এর চেয়ে আর বেশি ভালোবাসতে পারব না তোমাকে।’ ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বাগদত্তা বের্নথালের দিকে অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে আছেন শেরিল স্যান্ডবার্গ।

পিপল ম্যাগাজিনের খবরে বলা হয়েছে, ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে পর্বতে একসঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে আলোচনায় আসেন এই জুটি। এতে আরও বলা হয়, বাগদান অনুষ্ঠানে বের্নথাল স্যান্ডবার্গকে যে আংটি পরিয়েছেন তাতে মোট পাঁচটি হীরার টুকরো বসানো রয়েছে। যা তাদের পাঁচ ছেলেমেয়ের চিহ্নস্বরূপ।

স্যান্ডবার্গের আগের পক্ষের দুটি সন্তান রয়েছে। অপরদিকে বের্নথালের রয়েছে তিন সন্তান।

২০১৫ সালে এক দুর্ঘটনায় মারা যান স্যান্ডবার্গের স্বামী ডেভিড গোল্ডবার্গ। গত বছর স্যান্ডবার্গের আগের পক্ষের স্বামীর ভাইয়ের মাধ্যমে একে অপরের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পান এই জুটি। এরপর তারা এক বছর ধরে ডেটিং করে আসছেন।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪৬ বছর বয়সী টম বের্নথাল এর আগে আমেরিকান টেলিভিশন এনবিসিতে কাজ করেছেন। সেখান থেকে তিনি টেলিভিশন প্রযোজক হিসেবে ‘অ্যামি আওয়ার্ড’ জেতেন।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক ছাত্রী শেরিল স্যান্ডবার্গ এর আগে কাজ করেছেন বিশ্বব্যাংক, গুগলসহ বিভিন্ন খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানে। ১৯৬৯ সালে ওয়াশিংটন ডিসিতে জন্ম নেয়া এই নারী ২০১৭ সালে টাইম সাময়িকীর করা বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী মানুষের তালিকায় স্থান করে নেন।

ব্লুমবার্গের এক খবরে বলা হয়, বাগদান বিষয়ে শেরিলের পোস্টের জবাবে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছেন, ‘তোমরা একে অপরের জন্য দুর্দান্ত। তোমাদের দুজনের জন্য আমি ভীষণ খুশি।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •