মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা পুলিশের ব্যবস্থাপনায় আজ সোমবার ৩ ফেব্রুয়ারী বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে টেকনাফ সরকারি কলেজ মাঠে ২১ জন ইয়াবাকারবারী, মাস্টার হুন্ডি-বিকাশ কারবারি প্রচুর অস্ত্র ও ইয়াবা নিয়ে আত্মসমর্পণ করছে। যাদেরকে আত্মসমর্পণের জন্য মধ্যস্থতাকারী ইতিমধ্যে টেকনাফ কলেজ মাঠে নিয়ে এসে কক্সবাজার জেলা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। তারা হলো :

১.মোহাম্মাদ রিদওয়ান
পিতা:হাজী ফজল আহমদ
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
২.আব্দুর রাজ্জাক
পিতা:হাজী ফজল আহমদ
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
৩.বশির আহমদ
পিতা: সুলতান আহমদ
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
৪.আব্দুল আমিন আবুল
পিতা:মৃত আমির হোসেন
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
৫.আবুল কালাম
পিতা: মৃত লাল মিয়া
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
৬.ফজর করিম
পিতা: রুহুল আমিন
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
৮.মোহাম্মদ ইদ্রিস
পিতা: মৃত হাজী মকতুল হোসেন
গ্রাম:লেজির পাড়া
১০.মোহাম্মদ তৈয়ূব (প্রকাশ)মধু
পিতা: জহির আহমেদ
গ্রাম: উত্তর লম্বরী
১১.মোহাম্মদ জাহেদ
পিতা: ফজলুর রহমান
গ্রাম:মাঠপাড়া
১২.আব্দুল নূর
পিতা: মৃত কামাল হোসেন
গ্রাম: পুরাতন পল্লান পাড়া
১৩.মোহাম্মদ রাসেল
পিতা: সৈয়দ হোসেন
গ্রাম:মৌলভী পাড়া
১৪.আব্দুল গফুর
পিতা: মৃত সৈয়দুর রহমান
গ্রাম: সিকদার পাড়া
১৫.মোহাম্মদ সাদ্দাম
পিতা:আবুল কালাম সদর
গ্রাম: খয়রাতি পাড়া
১৬.মোহাম্মদ হোসেন
পিতা:আমির হোসেন
গ্রাম: সিকদার পাড়া
১৭.মোহাম্মদ ইসমাইল
পিতা: আব্দুল জলিল
গ্রাম:লামার বাজার
১৮.ইমাম হোসেন
১৯. শাহাদাত হোসেন অপর ২ জনের নাম এখনো জানা যায়নি।

২১ জন আত্মসমর্পণকারীর প্রোফাইল ইতিমধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ শাখায়, পুলিশ সদর দপ্তর, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি’র দপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ক্লিয়ারেন্স দেওয়ার পর আজ আত্মসমর্পন অনুষ্ঠান হচ্ছে।

আজকের সারেন্ডার অনুষ্ঠানে টেকনাফ উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের এর উদ্যোগে ২০২০ সালের জাতীয় পুলিশ সপ্তাহে আইজিপি ব্যাজ প্রাপ্ত পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম (বার) পিপিএম, সারাদেশে একমাত্র এসপি হিসাবে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (সেবা) পদক প্রাপ্ত কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম (বার), আইজিপি ব্যাজ প্রাপ্ত কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোঃ ইকবাল হোসাইন, মহেশখালী থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর ও টেকনাফ মডেল থানার এএসআই সনজিব দত্ত, পরপর ৪ টি আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানের সফল মধ্যস্থতাকারী সাংবাদিক এম.এম আকরাম হোসাইনকে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা পুলিশ আয়োজিত এই আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানের শিরোনাম দেওয়া হয়েছে “কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ ও মাদক ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান”। কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম (বার) অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন। পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম (বার) পিপিএম আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, কমিউনিটি পুলিশিং এর কক্সবাজার জেলা সভাপতি, সিনিয়র সাংবাদিক এডভোকেট তোফায়েল আহমদ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন।

অনুষ্ঠানে যোগদিতে পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম (বার) পিপিএম সোমবার ৩ ফেব্রুয়ারী দুপুরে টেকনাফ পৌঁছে গেছেন বলে একটি সুত্র সিবিএন-কে জানিয়েছেন।

আজ সাড়ে ৩ টার দিকে আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠান শুরু হবে। আত্মসমর্পণের পর তাদের বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে টেকনাফ মডেল থানায় পৃথক ২ টি জিআর মামলা দায়ের করে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে একইদিন সন্ধ্যায় কারাগারে পাঠানো হবে। তবে এ মামলা থেকে আত্মসমর্পণকারীরা সহজে মুক্তি পেতে মামলা পরিচালনায় রাষ্ট্রপক্ষ আত্মসমর্পণকারীদের সহযোগিতা করবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •