মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সোমবার ৩ ফেব্রুয়ারী বিকেলে টেকনাফ সরকারি কলেজে মাঠে ইয়াবাকারবারীদের আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানের দাওয়াত পাননি উক্ত এলাকার ২ বারের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি ও একই আসনের বর্তমান এমপি তাঁর সহধর্মিণী শাহীন আক্তার চৌধুরী। তাই ২ জনেরই ইয়াবাকারবারীদের ২য় দফায় আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে সোমবার যাওয়া হচ্ছেনা। বিষয়টি ইয়াবাকারবারী আত্মসমর্পণের সাথে সংশ্লিষ্ট একটি সুত্র সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ হাইস্কুল মাঠে ১ম দফায় ১০২ জন ইয়াবাকারবারী আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে কক্সবাজার-৪ (টেকনাফ-উখিয়া) আসনের বর্তমান এমপি শাহীন আক্তার চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বর্তমান এমপি শাহীন আক্তার চৌধুরীর স্বামী ২ বারের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি সেবারও দাওয়াত পাননি।
এবিষয়ে জানার জন্য এমপি শাহীন আক্তার চৌধুরীর সেল ফোনে অনেকবার কল করলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। ইয়াবার স্বর্গরাজ্য হিসাবে পরিচিত টেকনাফ। সে টেকনাফের সাবেক ও বর্তমান এমপি একই এলাকার একটা বড় রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে দাওয়াত না পাওয়ার বিষয়টি ঐ এলাকার মানুষের কাছে কৌতুহলের অন্ত নেই। অনুষ্ঠানের স্টেইজের বেকগ্রাউন্ডে লাগানোর জন্য তৈরিকরা ব্যানারেও এমপি শাহীন আক্তার চৌধুরীর নাম নেই।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার জেলা পুলিশ আয়োজিত এই আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম (বার) অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন। পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম (বার) পিপিএম আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, কমিউনিটি পুলিশিং এর কক্সবাজার জেলা সভাপতি, সিনিয়র সাংবাদিক এডভোকেট তোফায়েল আহমদ বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •